নাফ নদীতে বিজিবি’র অভিযানে ‘আইস’ ও ইয়াবা উদ্ধার

fec-image

নাফ নদীতে অভিযান চালিয়ে এক কেজি ৪০ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ আইস, ৪০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন ২ বিজিবি সদস্যরা । এ সময় টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাসকারী মো. সিরাজুল ইসলাম ( ২৮ ) ও সৈয়দ সালাম ( ৩৮ ) নামের দু’জন মিয়ানমার নাগরিককে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) ভোররাতে বাংলাদেশ মিয়ানমার সীমান্তবর্তী টেকনাফের জালিয়ারদ্বীপ এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। জব্দ করা মাদকের মূল্য প্রায় ছয় কোটি চল্লিশ লক্ষ পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ব্যাটালিয়ন ২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার।

তিনি জানান , গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় যে , (২৮ এপ্রিল) বৃহস্পতিবার রাতে টেকনাফ দমদমিয়া বিওপি’র উত্তর – পূর্ব দিকে জালিয়ারদ্বীপ এলাকার পার্শ্ববর্তী নাফ নদীর সীমান্ত দিয়ে মাদকের একটি চালান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে পাচার হতে পারে ।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন সদর হতে একটি বিশেষ টহল নাফ নদীর জালিয়ারদ্বীপ এর কেওড়া বাগানে কৌশলগত অবস্থান গ্রহণ করে । আনুমানিক ১ টার সময় বিজিবি টহলদল একজন ব্যক্তিকে জালিয়ারদ্বীপের পার্শ্বে নাফ নদীতে ছদ্মবেশ ধারণ করে কাঠের নৌকায় করে জাল দিয়ে মাছ ধরতে দেখতে পায় । এ সময় টহলদল মিয়ানমার থেকে একজন চোরাকারবারীকে সাঁতরিয়ে নাফ নদী পার হয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে জালিয়ারদ্বীপে মাছ ধরারত ওই জেলের কাছে এসে একটি বস্তা হস্তান্তর করে। আগে থেকেই অবস্থানে থাকা বিজিবি টহলদল চারিদিক থেকে স্পিডবোটের মাধ্যমে ঘেরাও করে ওই ব্যক্তিকে আটক করে। পরে তাদের নিকট থেকে একটি বস্তা জব্দ করে এবং উক্ত বস্তা থেকে এক কেজি চল্লিশ গ্রাম ক্রিস্টাল মেঘ আইস ও চল্লিশ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে ।

এছাড়াও আটককৃত আসামীদের নিকট হতে ১টি কাঠের নৌকা , ১টি মোবাইল ফোন এবং মাছ ধরার জাল জব্দ করা হয় ।

আকটকৃত আসামিরা টেকনাফ ২৪ নং মোচনী ক্যাম্প এর এ / ১ ব্লকে বসবাসকারী বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক (এফডিএমএন)
মো. সিরাজুল ইসলাম ( ২৮ ) ও টেকনাফ ২৬ নং জাদিমোড়া ক্যাম্প এর ডি / ৩ ব্লকে বসবাসকারী বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক সৈয়দ সালাম ( ৩৮ )।

এদিকে আটককৃত আসামিদেরকে জব্দকৃত ক্রিস্টাল মেথ আইস এবং ইয়াবা ট্যাবলেট বহন ও পাচার এর দায়ে নিয়মিত মামলার মাধ্যমে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান টেকনাফ ব্যাটালিয়ন ( ২ বিজিবি ) অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 5 =

আরও পড়ুন