নারায়ে তাকবীর ধ্বনিতে উত্তপ্ত পাহাড়ি জনপদ মাটিরাঙ্গা

fec-image

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে নারায়ে তাকবীর ধ্বনিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে পাহাড়ি জনপদ খাগড়াছড়ি।

শুক্রবার (১০ জুন) বাদ জুম্মা হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান ‘রাসূলকে কটূক্তি, মানি না মানবো না’, ‘মুদির দুই গালে, জুতা মারো তালে তালে’ স্লোগানে মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে একত্রিত হয়ে বিশ্বনবীকে কটূক্তির প্রতিবাদ জানায়।

খিদমাতুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন এবং ইমাম ও ওলামা কল্যাণ পরিষদ এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

এ সময় খাগড়াছড়ি-ঢাকা আঞ্চলিক সড়কে দুই কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধনে মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব হাফেজ মো. হারুনুর রশীদ, মাটিরাঙ্গা দারুচ্ছুন্নাহ মাদরাসার পরিচালক মাও. আনোয়ার হোসেন মিয়াজী, খাগড়াছড়ি জেলা কওমী মাদ্রাসা ওলামা ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাও. আক্তারুজ্জামান ফারুকী, ননতুনপাড়া জজামে মমসজিদের পেশ ইমাম মুফতী মো. আব্দুল হান্নান জুলফিকার ও মাটিরাঙ্গা বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা কমিটির সহসভাপতি মো. জসিম উদ্দিন ভুইয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্য করেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা ও দিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন জিন্দালের আন্তর্জাতিক আদালতের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। বক্তারা বলেন, রাসূলকে নিয়ে কটূক্তি কোনো মুসলমান মেনে নিতে পারে না। রাসূল আমাদের আদর্শ। তাঁর আদর্শ আমাদের রক্তে। তাই এক বিন্দু রক্ত থাকা অবস্থায় রাসূলের নামে কোনো অবমাননা মেনে নেয়া হবে না। মানববন্ধন থেকে ভারতীয় পণ্য বয়কটের ডাক দেয় বক্তারা।

ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ কাজী মো. সলিম উল্যাহ, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ আলী, ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শহীদুল ইসলাম সোহাগ, ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. আলাউদ্দিন লিটন ও মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারন সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন ডিলার ছাড়াও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার বিভিন্ন মসজিদ থেকে আসা কয়েক হাজার মুসল্লি উপস্থিত ছিলেন।

একই সময় খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি, পানছড়ি, রামগড় ও মহারছড়িসহ বিভিন্ন উপজেলায় বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen + 10 =

আরও পড়ুন