নেতানিয়াহুর দুর্নীতির বিচার পেছানো হল করোনার কারণে

fec-image

করোনাভাইরাসের কারণে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর ঘুষ, জালিয়াতি ও বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগে দুর্নীতির বিচারকার্য দুই মাস পেছানো হয়েছে।  রোববার দেশটির বিচার বিভাগ নেতানিয়াহুর মামলার শুনানি ২৪ মে পর্যন্ত স্থগিত করে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদলু এজেন্সি জানিয়েছে, করোনার কারণে অবৈধ রাষ্ট্রটির আইনমন্ত্রী আমির ওহানা আদালতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করার একদিন পরই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

ইসরাইলের বিচার বিভাগ থেকে জানানো হয়, নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যে তিনটি অভিযোগ আদালতে উত্থাপনের কথা ছিল করোনার কারণে তা আদালতে উত্থাপন করা হবে না।

ঘুষ, জালিয়াতি ও বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগে গত নভেম্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে ইসরাইলের অ্যাটর্নি জেনারেল দেশটির প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করেন। শুরু থেকেই অভিযোগগুলোকে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ অ্যাখ্যা দিয়েছেন নেতানিয়াহু।

ইসরাইলি আইনে সাংসদদের বিচার থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে দায়মুক্তি মেলে না। এর জন্য আবেদন করতে হয়। নিয়ম অনুযায়ী, দায়মুক্তির আবেদন পার্লামেন্টে নিষ্পত্তি হওয়ার আগ পর্যন্ত ইসরাইলের বিচারবিভাগ মামলা নিয়ে অগ্রসর হতে পারবে না। এই আবেদন পাস হতে পার্লামেন্ট নেসেটের অর্ধেকের বেশি সাংসদের সমর্থন লাগবে।

দীর্ঘ দুই দশক ধরে লিকুদ পার্টির নেতৃত্বের আসনে রয়েছেন নেতানিয়াহু। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় প্রায় ১০ বছর। গত বছরে দুই-দুইবার সাধারণ নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সরকার গঠনে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × one =

আরও পড়ুন