পছন্দের প্রার্থী মনোনয়ন না পাওয়ায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ

fec-image

রাঙামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার ৩নং বাঙালহালিয়া ইউনিয়নের পছন্দের প্রার্থী আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ( নৌকা প্রতীক) বঞ্চিত হওযায় তার কর্মী সমর্থকরা উপজেলার আওয়ামী লীগের কার্যলয়ের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এসব কর্মসূচি পালন করে বাঙালহালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা ঞোমং মারমা

জানাগেছে, তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য রাঙামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের নির্বাচন আগামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে সামনে রেখে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী বাছাই করে তার তালিকা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যলয়ে পাঠায়। তারই প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন বোর্ড বৈঠক করে রাজস্থলী উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর বিষয়টি চুড়ান্ত করে গত মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বেলা ১২টায় তাদের তালিকা প্রকাশ করে। ওই তালিকায় বাঙালহালিয়া ইউপি থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ঞোমং মারমা এর নাম না থাকায় কর্মী সমর্থকরা ক্ষোভে এ সব কর্মসূচি পালন করে।

বিক্ষোভ সমাবেশে দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত চেয়ারম্যান প্রার্থী ( বর্তমান) চেয়ারম্যান ঞোমং মারমা বলেন ,, ২০/২২ বছর ধরে আমি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কোন ধরনের কলঙ্কের তিলক পড়েনি। স্বচ্ছ রাজনীতি করে এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠায় ইউনিয়নবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলাম। রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ আমার মনোনয়ন যাচাই বাছাই করে আমার নামের তালিকা ১ নম্বরে স্থান দিয়ে কেন্দ্রের কাছে পাঠায় কিন্তু আমি আজ কালো টাকার কাছে হেরে গিয়ে দলীয় মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমি আওয়ামী লীগের দলীয় বঞ্চিত হলেও মানুষের ভালবাসা থেকে বঞ্চিত হইনি। যার প্রমাণ কোন ঘোষণা ছাড়াই আমার শতশত কর্মী সমর্থকরা বুধবার সকাল থেকে ১২টা পর্যন্ত দীর্ঘ ১ ঘন্টা মানববন্ধন বিক্ষোভ সমাবেশের পাশা পাশি দলীয় কার্যলয়ের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে। আমি দলীয় মনোনয়নে বঞ্চিত হলেও আমার ইউনিয়নের বাসিন্দাদের ভালবাসা ও সম্মান রক্ষার্থে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে যাবো। এ নির্বাচনে জয়ী হয়ে নেত্রীর কাছে প্রমাণ করে দেব ৩নং বাঙালহালিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দাদের কাছে কত জনপ্রিয় নেতা ছিলাম।

তিনি আরো বলেন, কে বা কারা আমার বিরুদ্ধে ভূয়া ও ভিত্তিহীন উদ্দেশ্যপ্রণোনীতভাবে কেন্দ্রে অভিযোগ করেছে। ইহার আমি সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণে জোর দাবি ও তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সমাবেশ শেষে শতাধিক গাড়ি বহর নিয়ে নেতা কর্মীরা পরিষদ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিক্ষোভ প্রকাশ করে।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উবাচ মারমা বলেন, আমরা যাচাই-বাছাই করে বায়োডাটা সংগ্রহ করে জেলায় প্রেরণ করেছি। জেলায় সেটা বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টের ভিত্তিতে প্রার্থী বাছাই করে। কিন্তু কি কারণে বাঙালহালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের দলীয় মনোনয়ন বাতিল হয়ছে সেটা অবগত নই।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + sixteen =

আরও পড়ুন