পর্নো ভিডিও, চারজন নারীসহ কক্সবাজারে কথিত মানবাধিকারকর্মী আটক

fec-image

কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডির একটি বসতবাড়িতে অভিযান চালিয়ে পর্নো ভিডিও, চারজন নারীসহ জমির হোসাইন রুবেল নামের কথিত মানবাধিকারকর্মী আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) দিবাগত রাত ৩টার দিকে চৌফলদন্ডির উত্তরপাড়ায় অভিযান চালানো হয়। আটক জমির হোসাইন রুবেল ওই এলাকার মৃত মো. আলমের ছেলে। সে মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সভাপতি বলে জানা গেছে।

তার নিকট থেকে উদ্ধারকৃত পরিচয়পত্রে ‘মানবাধিকার তথ্য পর্যবেক্ষণ সোসাইটি’ নামক একটি সংস্থার চৌফলদন্ডি কমিটির সভাপতি লেখা।

শনিবার (১৪ আগস্ট) দুুপুরে এই রিপোর্ট লেখাকালে আটক ৫ জনই কক্সবাজার সদর মডেল থানা হেফাজতে রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আভিযান ও আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসারইনচার্জ (ওসি) শেখ মুনীর উল গীয়াস।

তিনি জানান, অভিযোগ পেয়ে একটি বসতবাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় জমির হোসাইন রুবেল নামক ব্যক্তি এবং ৪ জন মহিলা আটক হয়। তারা মাদক ও দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

ওসি জানান, রুবেলের মোবাইলে অনৈতিক ভিডিও এবং ছবি পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে মানবপাচার ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হচ্ছে।

খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, জমির হোসাইন রুবেল কক্সবাজার শহরের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে পতিতা, মদের আসর বসাতো। লকডাউনে হোটেল বন্ধ থাকায় নিজ বাড়িতেই আসর গড়ে তুলে। তার সঙ্গে রয়েছে আরো নামিদামি কয়েকজন ব্যক্তি। যারা রুবেলের অপকর্মের ভাগ নেয়। আশ্রয় প্রশ্রয় দেয়। এমন কয়েকজনের নাম প্রতিবেদককে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

অভিযোগ আছে, বিভিন্ন নষ্ট মহিলার সম্পর্ক রয়েছে রুবেলের। কৌশলে তাদের গোপনে ভিডিও ধারণ করতো। তা নিয়ে ব্লেকমেইলিং ও টাকা হাতিয়ে নিত। রাজনৈতিক ও মানবাধিকার পরিচয়ে রুবেল গড়ে তুলে অপ্রতিরোধ্য সিন্ডিকেট।

এলাকাবাসী বলছে, সঠিক অনুসন্ধান করলে বেরিয়ে আসবে আরো অনেক অজানা তথ্য ও রহস্য। পাওয়া যাবে রুবেলের নেপথ্যে থাকা লোকদের আসল পরিচয়। মুখোশ উন্মোচন হবে অপরাধীচক্রের।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − five =

আরও পড়ুন