“ব্যাটিং-বোলিংয়ে দুর্দান্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ এদিন পাকিস্তানকে পাত্তাই দেয়নি।”

পাকিস্তানকে উড়িয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সূচনা

 

পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকাপে সূচনা করল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে শুক্রবার পাকিস্তানকে সাত উইকেটে হারিয়েছে ক্যারিবীয়রা। টুর্নামেন্টে দুইটি দলেরই এটি ছিল প্রথম ম্যাচ। ব্যাটিং-বোলিংয়ে দুর্দান্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ এদিন পাকিস্তানকে পাত্তাই দেয়নি।

নটিংহামের ট্রেন্ট ব্রিজে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে পাকিস্তানের দেয়া ১০৬ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৩.৪ ওভারে তিন উইকেটে হারিয়ে জয় তুলে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলের পক্ষে ওপেনার ক্রিস গেইল ৩৪ বলে ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কার সাহায্যে ৫০ রান করেন। ১৯ বলে ৩৪ রান করে অপরাজিত থাকেন নিকোলাস পুরান। পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির ২৬ রান দিয়ে তিনটি উইকেট শিকার করেছেন।

ছোট লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ শুরুটা করে দারুণ। দলীয় ৩৬ রানে প্রথম উইকেট হারায় তারা। শাই হোপকে ফিরিয়ে দেন আমির। দলীয় ৪৬ রানে ওই আমিরের বলেই ফিরে যান ড্যারেন ব্রাভো। ১১তম ওভারে গেইলকেও ফেরান আমির। পরে নিকোলাস পুরান ও শিমরন হেটমায়ার ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

এদিন টস হেরে ব্যাট করতে নামে পাকিস্তান। কিন্তু ক্যারিবিয়ানদের গতি তোপে টিকতে পারেনি তারা। মাত্র ১০৫ রানে অলআউট হয় তারা। ২১.৪ ওভার ব্যাট করতে পেরেছে সরফরাজ আহমেদরা। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর ২২ রান। পাকিস্তানের দশটি উইকেটই নিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসাররা। ২৭ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়েছেন ওশানে থমাস। ৪২ রান দিয়ে তিন উইকেট নিয়েছেন অধিনায়ক জ্যাসন হোল্ডার। তিন ওভারে চার রান দিয়ে দুইটি উইকেট নিয়েছেন আন্দ্রে রাসেল। একটি উইকেট নিয়েছেন শেল্ডন কটরেল।

পাকিস্তান ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে শেল্ডন কটরেলের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ হন ইমাম-উল-হক। ষষ্ঠ ওভারে আন্দ্রে রাসেলের বলে বোল্ড হন অপর ওপেনার ফখর জামান। দশম ওভারে হারিস সোহেলকেও ফেরান রাসেল।

১৪তম ওভারে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ বানিয়ে বাবর আজমকে ফেরান ওশানে থমাস। ১৭তম ওভারে দুইটি উইকেট শিকার করেন অধিনায়ক হোল্ডার। ওভারের প্রথম বলে পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ ফিরে যান উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ দিয়ে। শেষ বলে গেইলের হাতে ধরা পড়েন ইমাদ ওয়াসিম।

১৮তম ওভারে শাদব খানকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন থমাস। ১৯তম ওভারে হাসান আলীকে ফেরান হোল্ডার। ২০তম ওভারে হাফিজকে ফিরিয়ে দেন থমাস। ২২তম ওভারে পাকিস্তানের শেষ উইকেটটি নেন থমাস। ওয়াহাব রিয়াজকে বোল্ড করেন তিনি। টুর্নামেন্টে দুই দলই নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছে। ম্যাচ সেরা হয়েছেন ক্যারিবিয়ান পেসার ওশানে থমাস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ফল: ৭ উইকেটে জয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

পাকিস্তান ইনিংস: ১০৫ (২১.৪ ওভার)

(ইমাম-উল-হক ২, ফখর জামান ২২, বাবর আজম ২২, হারিস সোহেল ৮, সরফরাজ আহমেদ ৮, মোহাম্মদ হাফিজ ১৬, ইমাদ ওয়াসিম ১, শাদব খান ০, হাসান আলী ১, ওয়াহাব রিয়াজ ১৮, মোহাম্মদ আমির ৩*; শেল্ডন কটরেল ১/১৮, জ্যাসন হোল্ডার ৩/৪২, আন্দ্রে রাসেল ২/৪, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ০/১৪, ওশানে থমাস ৪/২৭)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইনিংস: ১০৮/৩ (১৩.৪ ওভার)

(ক্রিস গেইল ৫০, শাই হোপ ১১, ড্যারেন ব্রাভো ০, নিকোলাস পুরান ৩৪*, শিমরন হেটমায়ার ৭*; মোহাম্মদ আমির ৩/২৬, হাসান আলী ০/৩৯, ওয়াহাব রিয়াজ ০/৪০)।

ম্যাচ সেরা: ওশানে থমাস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × five =

আরও পড়ুন