পার্বত্য অঞ্চলে দুর্গম জনগোষ্ঠীর নিরাপদ পুষ্টি নিশ্চিতে এগিয়ে আসার আহ্বান

fec-image

রাঙ্গামাটি জেলার পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম জনগোষ্ঠীর সচেতনতার মাধ্যমে নিরাপদ পুষ্টি নিশ্চিত করতে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলায় ২দিন ব্যাপী মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) নিউট্রিশন সেনসেটিভ প্রোগ্রামিং প্রশিক্ষণ উদ্বোধনকালে ১ম দিন প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান উবাচ মারমা একথা বলেন।

উপজেলা পুষ্টি সমন্বয় কমিটির (ইউএনসিসি) আয়োজনে জেলা পুষ্টি সমন্বয় কমিটি ও বাংলাদেশ ফলিত পুষ্টি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (বারটান) এর প্রশিক্ষণ সহায়তায় লিডারসীপ এনসিউর এড ইউকেট নিউট্রেশন (নীল) প্রকল্পের সহযোগিতায় ১৭-১৮ নভেম্বর ২দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আজ ২য় দিন।

সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের পুষ্টি যোগিতে রয়েছে বিশেষ করে শিশু –কিশোর ও গর্ভবতি নারীরা। তাদের যথাযথ পুষ্টি নিশ্চিত না হওয়ায় নতুন প্রজন্মের শিশুরা পুষ্টিহীনতার বিভিন্ন রোগে ভুগছে। এ সময় বক্তারা বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলের গর্ভবতি নারীদের পুষ্টি নিশ্চায়নে কুসংষ্কার একটি বড় বাধা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ ছাদেক এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উচসিন মারমা গাইন্দ্যা ইউপি চেয়ারম্যান, উথান মারমা, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ রুইহ্লাঅং মারমা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসিবুল হাসান, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা স্মৃতি চাকমা, রাজস্থলী প্রেসক্লাবের সভাপতি আজগর আলী খান, সাংবাদিক চাউচিং মারমা, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বুদিসত্ব বড়ুয়া, স্থানীয় সাংবাদিক মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তাসহ উপজেলা পুষ্টি সমন্বয় কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ২দিন ব্যাপী নিউট্রেশন সেনসেটিভ প্রোগ্রামিং প্রশিক্ষনে ট্রেইনার হিসেবে ছিলেন উপ-পরিচালক কৃষি রাঙ্গামাটি পবন কুমার চাকমা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 1 =

আরও পড়ুন