পার্বত্য এলাকার স্কুলে দ্রুত শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ

fec-image

পার্বত্য তিন জেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শূন্য পদের সংখ্যা এক হাজার ৫৮৫টি। এর মধ্যে প্রধান শিক্ষক পদে শূন্য ৪৬৯টি এবং সহকারী শিক্ষক পদে শূন্য পদ এক হাজার ১১৬টি।

মঙ্গলবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানিয়ে শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। বৈঠকের পর সংসদ সচিবালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বৈঠকে জানানো হয়, তিন পার্বত্য জেলায় বর্তমানে কর্মরত প্রধান শিক্ষকের সংখ্যা এক হাজার ৪৮ জন এবং কর্মরত সহকারী শিক্ষকের সংখ্যা ছয় হাজার ৭৮৯ জন। পার্বত্য তিন জেলায় প্রাথমিকের শিক্ষকের মোট পদ সংখ্যা নয় হাজার ৪২২টি। এসব পদের বিপরীতে প্রধান ও সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন মোট সাত হাজার ৮৩৭ জন।

কমিটির সভাপতি দবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং, দীপংকর তালুকদার, এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এবং বাসন্তী চাকমা বৈঠকে অংশ নেন।

এছাড়া বৈঠকে পার্বত্য শান্তিচুক্তির অধীনে প্রণীত নীতিমালা অনুযায়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরি নিয়োগ প্রক্রিয়া জেলা প্রশাসকের পরিবর্তে জেলা পরিষদের অধীনে ন্যস্ত করার সুপারিশ করা হয়।

পার্বত্য এলাকায় ১৪২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে বিশেষ বিবেচনায় ‘বিদ্যালয়বিহীন গ্রামে এক হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পে’ অন্তর্ভুক্ত করে জাতীয়করণের সুপারিশও করা হয় বৈঠকে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 10 =

আরও পড়ুন