পার্বত্য শান্তিচুক্তির দুই যুগ পূর্তি উপলক্ষে দীঘিনালায় শোভাযাত্রা

fec-image

দীঘিনালায় পার্বত্য শান্তি চুক্তির দুই যুগ পূর্তি উপলক্ষে আনন্দ শোভাযাত্রা করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) দীঘিনালা জোনের উদ্যোগে আনন্দ শোভাযাত্রাটি দীঘিনালা লারমা স্কোয়ার থেকে শুরু হয়ে উপজেলা পরিষদে চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

এর আগে আনন্দ শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন দীঘিনালা জোন অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল চৌধুরী মোহাম্মদ ফাহিম আশরাফী, পিএসসি।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, দীঘিনালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ কাশেম, দীঘিনালা জোনের উপ অধিনায়ক মেজর শামিন শিকদার রাতুল, মেজর মির্জা মেহেদী আসলাম বেগ, দীঘিনালা উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল মিন্টু, উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান সীমা দেওয়ান, দীঘিনালা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু, দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম পেয়ার আহমেদ, দীঘিনালা কাঠ ব্যাবসায়ী সমিতির সভাপতি ও বোয়ালখালী বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ জসিম, বোয়ালখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান চয়ন বিকাশ চাকমা, দীঘিনালা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রজ্ঞান জ্যাতি চাকমা, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদীকা মাহমুদা বেগম লাকী, উপজেলা জেএসএস এর ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক নলেজ চাকমা জ্ঞান প্রমুখ।

উল্লেখ্য যে, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়িদের সঙ্গে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বন্ধ এবং শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সম্পাদিত একটি শান্তি চুক্তি। পার্বত্য চট্টগ্রামের উপজাতিদের প্রতিনিধি জনসংহতি সমিতির সঙ্গে বাংলাদেশ সরকার ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর এই চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল। এতে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ এবং শান্তি বাহিনীর পক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির নেতা সন্তু লারমা। এরপর ধীরে ধীরে উপজাতি বাঙ্গালী সংঘর্ষ হ্রাস পায়। পার্বত্য চট্টগ্রামে বইতে শুরু করে শান্তির সু-বাতাস।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × five =

আরও পড়ুন