পাহাড়ে হানাহানি ও ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত বন্ধ করতে হবে: এমপি দীপংকর

fec-image

খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার বলেছেন, পাহাড়ে হানাহানি ও ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত বন্ধ করতে।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবীলীগ রাঙামাটি জেলার প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এমপি দীপংকর বলেন, সমাজকে অস্থিতিশীল রেখে কখনোই মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই সমাজে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে হবে। পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রত্যেকটি দূর্গম এলাকায় মৎস্যজীবীদের ভাগ্যের উন্নয়নে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। কাপ্তাই হ্রদে মাছ মারা বন্ধকালীন সময়ে যাতে মৎস্যজীবীরা কষ্ট পেতে না হয় তার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ভিজিএফের মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা প্রদান করছে। এতে করে তিন মাস মাছ মারা বন্ধকালীন সময়ে তারা পরিবার পরিজন নিয়ে শান্তিতে বসবাস করছে।

এমপি আরও বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়ন বান্ধব। এ সরকারের সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। রাঙ্গামাটি জেলাসহ পার্বত্য চট্টগ্রামের এমন কোনো জায়গা নেই, যেখানে উন্নয়ন হয়নি। ফলে পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও যোগাযোগসহ সব খাতে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে।

আওয়ামী লীগ মৎস্যজীবীলীগ রাঙামাটি জেলা শাখার আহ্বায়ক উদয়ন বড়ুয়া সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী মৎস্যজীবীলীগের কেন্দ্রীয় নেতা এসএম নাসির উদ্দিন মানিক, এম এ গাফ্ফার কুতুবী, ইঞ্জিনিয়ার মো. আনোয়ার হোসেন, এম এ মোতালেব তালুকদার, রাঙামাটি জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি শামসুল আলম, রাঙামাটি জেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল, রাঙামাটি জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ জাহানসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিনিধি সভায় রাঙামাটি জেলার ১০টি উপজেলাসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ সভায় অংশগ্রহণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 10 =

আরও পড়ুন