পেকুয়ায় গণপিটুনিতে ২ ডাকাত নিহত

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় ডাকাতি ও গুলি করে মালয়েশিয়া প্রবাসী নুরুন্নবী (২৭) খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গণপিটুনিতে দুই ডাকাত নিহত হয়েছে। নিহতরা হলেন উপজেলার শিলখালী ইউনিয়নের জারুলবনিয়া উত্তরজুম এলাকার নাগু মিয়ার ছেলে জামাল হোসেন (৩৫) ও নাজিম উদ্দিনের ছেলে মো. কাউছার ২৫)। গনপিটুনির শিকার আহত নুরুল ইসলামের ছেলে মো. নাসির উদ্দিনকে (২৮) আটক করা হয়েছে।

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে শিলখালীর পাহাড়ি অঞ্চল সাপের গাড়া ও উত্তরের ঝুম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ইউপি সদস্য আহমদ শফি ও স্থানীয় আলী চাঁন বলেন, প্রবাসী নুরুন্নবীর বাড়িতে ডাকাতি ও খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে গণপিটুনি দেয় জনতা। এ সময় ঘটনাস্থলে জামাল হোসেন নিহত হয়। পেকুয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে কাউসার মারা যায়।

পেকুয়া থানার ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার রাতে শিলখালী ইউপির সাপেরঘারা এলাকায় প্রবাসী নুরুন্নবীর বাড়িতে হানা দেয় একদল স্বশস্ত্র ডাকাত। তাদের ছোঁড়া গুলিতে প্রাণ হারায় মালয়েশিয়া প্রবাসী যুবক নুরুন্নবী। ধারালো অস্ত্রের কোপে গুরুতর আহত হয় তার ভাই মোজাম্মেল ও মা হাজেরা বেগম। আহতরা বেশ কয়েকজন হামলাকারীকে চেনে ফেলেন।

বুধবার সকালে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সাপেরঘারা ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকার পাঁচটি ঘর ঘেরাও করে। সেখান থেকে ডাকাতি ও খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জামাল উদ্দিন, মো. কাউছার ও নাসির হোসেনকে ধরে নিয়ে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলে মারা যায় জামাল হোসেন। দুপুরে পেকুয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় মো. কাউছার। অপর একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশের হেফাজতে তাদের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম বলেন, নিহতদের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen + four =

আরও পড়ুন