পেকুয়ায় গৃহবধু সেলিনা হত্যার ঘটনায় ৩৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় গৃহবধু সেলিনা আক্তারকে (৪৫) গুলি করে হত্যার ঘটনায় ৩৭ জনকে আসামি করে পেকুয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার (১২ এপ্রিল) রাতে নিহতের স্বামী ফরিদুল আলম বাদি হয়ে ২২ জনকে এজাহারনামীয়সহ আরও ১০/১৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে এ মামলাটি (০২/২১) দায়ের করেন। পেকুয়া থানার ওসি (তদন্ত) কানন সরকার মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বাদীর চাচাতো ভাই নুরুল ইসলাম ও নজরুল ইসলাম গংদের সাথে প্রতিবেশী মুহাম্মদ হোসেন গংদের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। গত রোববার গভীর রাতে বিরোধীয় জমিতে আসামিরা স্থাপনা নির্মানের চেষ্টা চালায়। অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা কয়েকটি বাড়িতে তাণ্ডব চালায়।

এসময় নিহত সেলিনা আক্তারের বাড়িতে হানা দিয়ে তার গবাদি পশু (গরু) নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় সেলিনা আক্তার বাধা দিলে তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এতে ঘটনাস্থলে মারা যান সেলিনা। গুলির আওয়াজ শুনে তার ভাতিজা বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্র নাজমুল সাকিব ও মেয়ে জামাই ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম বাড়ি থেকে বের হলে অস্ত্রধারীদের এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষন করে। এতে দুইজনেই গুলিবিদ্ধ হন। পরে তিনজনকে পেকুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক গৃহবধু সেলিনা আক্তারকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত অপর দুইজনকে গুরুতর জখম অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

ওই ঘটনায় জড়িত মুহাম্মদ হোসেনের ছেলে মাহমুদুল করিম ও মফিজুর রহমান পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। ওসি সাইফুর রহমান মজুমদার জানায়, হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও ঘটনায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারের জন্য কাজ করছে পুলিশ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: গৃহবধু, পেকুয়া, মামলা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × two =

আরও পড়ুন