পেকুয়ায় ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে গাড়ি ভাংচুরের মামলা

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, পেকুয়া :

পেকুয়া উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে গাড়ি ভাংচুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ২৯ ডিসেম্বর রাতে পহরচাঁদা এলাকার হাজী গুলজার আহম্মদের পুত্র মো: নাছির উদ্দিন বাদী হয়ে উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহছান উল্লাহসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামা ১৫/২০ জনের নামে ১৪৩/৩২৩/৩৭৯/৪২৭ দ:বি: মতে পেকুয়া থানায় মামলা রুজু করে।

মামলার  এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২৯ ডিসেম্বর বিকাল ৪ টায় বাদী নাছিরের মালিকানাধীন (ঢাকা মেট্রো ড-১১-২৩৬৮) পিকআপটি পেকুয়া সদর ইউনিয়নের সাকুরপাড় স্টেশনে ধান পরিবহণ করার জন্য পৌঁছলে উল্লেখিত আসামীরা গাড়ীটি লক্ষ্য করে রড়, লাঠি, ও গাছের গুড়ি নিয়ে হামলা করে গাড়ির ড্রাইভার আরমান ও হেলপ্পার নেছারকে আহত করে ড্রাইভারের কাছ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। আহতদেরকে চকরিয়া প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, কে বা কাহারা ঘটনাটি ঘটিয়ে উল্লেখিত বিএনপিজামায়াত শিবিরের কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে বিএনপি-জামায়াত যখন বিরুদ্ধে অবস্থানে আছে সেই সুবাধে যেকোন মামলায় বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মীদের মামলায় আসামী করা হয়। ঘটনার পর পরই পেকুয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রেণে আনে। রাতে পুলিশ এজাহারে লিখে মামলা প্রস্তুতি সম্পন্ন করে।

মামলার ১ নং আসামী আহাছ্না উল্লাহ ঘটনার দিন এলাকায় ছিল না। সে বিএনপির অভিযাত্রায় ঢাকায় যাওয়ার জন্য পেকুয়া ত্যাগ করে।  কিন্তু মামলা থেকে রেহায় হয়নি তার।

এ ব্যাপারে মামলার বাদী নাছির উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, মামলার সকল কাগজপত্র পুলিশ নিজেরাই তৈরি করছে আমি শুধু স্বাক্ষর করছি মাত্র। মামলার আসামীদেরকে চিনেন কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, তারা বিভিন্ন অবরোধ ও হরতালে গাড়ি ভাংচুর করে বলে তা চিহ্নিত।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকর্মকর্তা ও পেকুয়া থানার এস আই মকবুল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান মামলা রেকড় করা হয়েছে। তবে সুষ্ট তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 1 =

আরও পড়ুন