পেকুয়ায় জাতীয় শোক দিবসে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) ভোরে উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূর্বিতা চাকমার
নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পরে উপজেলা চত্বর থেকে একটি র‍্যালি বের হয়ে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা হলরুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বীরমুক্তিযুদ্ধা মাষ্টার ছাবের আহমদ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম মিনু, সহকারী কমিশনার ভূমি রাহুল চন্দ, পেকুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ ফরহাদ আলী, ওসি তদন্ত তাজউদ্দীন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল্লাহ বিএ, সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম, সমবায় অফিসার মোস্তফা জামান, শিক্ষা কর্মকর্তা ছালামত উল্লাহ, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন পেশাজীবি, সাংবাদিকবৃন্দ প্রমুখ।

এসময় অতিথিদের বক্তব্যে বলেন, ‘৭৫ এর ১৫ আগষ্ট ইতিহাসের কালো অধ্যায়। ওই রাতে আমরা হারিয়েছি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। পাশাপাশি হারিয়েছি বঙ্গবন্ধুর পরিবার শেখ জামাল, শেখ কামাল, শেখ রাসেল ও অন্যান্য সদস্যদের। পৃথিবী যতদিন বেঁচে থাকবে ততদিন ৭৫ এর ১৫ আগস্টেকে কেউ ভুলতে পারবে না। যারা স্বাধীনতাকে কখনো মেনে নিতে পারেনি, তারাই দেশী ও বিদেশী চক্রে ১৫ আগষ্ট হত্যাকান্ড চালিয়েছিলো। কিছু আর্মি অফিসারকে উসকানি দিয়ে এ-ই কর্মকাণ্ড ঘটিয়েছিলেন। আল্লাহর অশেষ রহমত ছিল আমাদের মহান নেত্রী বঙ্গবন্ধুর যোগ্যউত্তরসূরী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহেনা বিদেশে ছিলেন বিধায় বেঁচে গিয়েছিলেন। নাহলে তাঁরা দুজনেরও একই পরিণতি হতো। ইতিহাস অনেক কিছু সাক্ষ্য দেয়।’

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় শোক দিবস
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − ten =

আরও পড়ুন