পেকুয়ায় পুলিশ পরিচয়ে বসতবাড়ি ও দোকানে ডাকাতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, পেকুয়া :
পেকুয়ায় দূর্গম পাহাড়ি এলাকা টইটং ইউনিয়নে পুলিশ পরিচয়ে পাঁচ বসতবাড়ি ও দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। ডাকাতদের হামলায় মহিলাসহ ৪ জন আহত হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটছে বুধবার দিবাগত রাতে, টইটং ইউনিয়নের দূর্গম পাহাড়ী গুদিকাটা কেরংছড়ি ও মৌলভী হাছানের জমু গ্রামে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রাত আড়াইটার দিকে পেকুয়ার সীমান্ত উপজেলা বাশঁখালী এলাকা থেকে ১৫/২০ জনের একদল মুখোশধারী সশস্ত্র ডাকাত হানা দেয়।

ডাকাতদল টইটং বাজারের ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসাইনের বসতঘরে হানা দেয়। গভীর রাতে বসতঘরের সামনে এসে পুলিশ পরিচয় দিলে সরল মনে ব্যবসায়ী দেলোয়ার ঘরের দরজা খুলে দেয়। এসময় ডাকাতদল প্রবেশ করে পরিবারের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রশি দিয়ে বেঁধে  নির্যাতন করে নগদ ৩৬ হাজার টাকা, ২ ভরি স্বর্ণ সহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

এসময় ডাকাতদলের হামলায় আহত হয় দেলোয়ার হোসেন(৭০), স্ত্রী লুফা (৬০), পুত্র কায়সার(২৭), আহত হয়। পরে একই ইউনিয়নের একই এলাকার জামাল ও কামাল হোসেনের বসতঘরেও হানা দেয় ডাকাতদল। পরে ডাকাতদল টইটং বাজারে এসে আবুল হোসেনের দোকানে হানা দিয়ে ১২ হাজার টাকা ও মালামাল লুট করে।

এদিকে পেকুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মাস্টার হানিফ চৌধুরী জানান, একই রাতে পেকুয়া চৌমুহুনী স্টেশনে সমিতির অফিসে হানা দিয়ে অফিসের একটি ২০ হাজার টাকার রঙ্গিন টিভি নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (প্রশাসন) হাবিবুর রহমান  জানান, ডাকাতির খবর পাওয়া যায়নি তবে চুরি হওয়ার খবর পেয়েছেন। খবর পাওয়ার সাথে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ডাকাতি, পেকুয়া
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 2 =

আরও পড়ুন