পেকুয়ায় বসতঘরে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট, নারীসহ আহত- ৫

অগ্নিসংযোগ

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়নের ধনিয়াকাটা গ্রামে অসহায় মহিলার বসতঘরে নারকীয় তান্ডব চালিয়েছে সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তরা। এ সময় ওই অসহায় মহিলার বসতঘরে অগ্নিসংযোগের পাশাপাশি ব্যাপক লুটপাট চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পেকুয়া উপজেলার ধনিয়াকাটা স্টেশনের পূর্ব দিকে এই ঘটনা ঘটে।

জায়গা-জমির বিরোধ নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ভুক্তভোগি পরিবারের দাবি। দুর্বৃত্তদের  হামলায় নারীসহ ৫ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, ওই গ্রামের আবদুল গফুর, আবদুল মাবুদ, রহিমা বেগম, পারভিন, নুরুল হক। আহতদের পেকুয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত রহিমা বেগম সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল উদ্দিন বিএসসির বোন বলে জানা গেছে।

সরেজমিন গিয়ে স্থানীয় সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, টইটং ইউনিয়নের ধনিয়াকাটা গ্রামের আবদুল মাবুদ ও আবদুল গফুরের বসত ঘরে ঘটনার দিন একই গ্রামের মাহাবু মেম্বারের পুত্র সেলিম উদ্দিনের নেতৃত্বে বাহাদুর, আবদুুল মান্নান, ওসমান গনি, মনির উদ্দিন, রশিদ আহাং ও নুরুল আলমসহ আরো কয়েকজন লোক দেশিয় অস্ত্র নিয়ে বেপরোয়া হামলা চালায়। এ সময় তারা আবদুল মাবুদ ও আবদুল গফুরের বসতঘরে অগ্নিসংযোগ করে পরিবারের সদস্যদের পিঠিয়ে ও দেশিয় অস্ত্র দিয়ে গুরুতর আহত করে এবং আনুমানিক দুই লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক স্থানীয়রা বিষয়টি পেকুয়া থানা পুলিশকে অবগত করলে এসআই ওমর ফারুকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

পেকুয়া থানার এসআই ওমর ফারুক এ বিষয়ে জানান, স্থানীয় মাধ্যমে ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক দুর্বৃত্তদের ধাওয়া দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়। একটি বসতঘর পুড়িয়ে যাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − 8 =

আরও পড়ুন