পেকুয়ায় বিকাশ এজেন্ট থেকে লুটের ১৮ লক্ষ টাকা উদ্ধার, গ্রেফতার ২

fec-image

পেকুয়ার আলহাজ্ব কবির আহমদ চৌধুরী বাজারের বিকাশ এজেন্টের সাড়ে ৪৬ লক্ষ টাকা লুটের ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

শনিবার (১০ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের সিকদারপাড়ার জনৈক আনোয়ার মিয়ার বসতঘর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

তারা হলেন- চকরিয়ার ব্রাহ্মনপাড়ারবাসিন্দা মৃত আব্দুল শুকুরের ছেলে মো. সাইফুল (৩১) ও চট্টগ্রামের বাঁশখালী নানুপাড়ার (রুস্তুমকাটা) মোস্তাক আহম্মেদের ছেলে মো. কফিল উদ্দিন (২২)। এ সময় তাদের নিকট থেকে নগদ ১৮ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী রবিবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ৭ জুলাই রাতে পেকুয়ার আলহাজ্ব কবির আহমদ চৌধুরী বাজারের ইসলামী ব্যাংক ভবনের তৃতীয় তলায় অবস্থিত বিকাশ ডিস্টিবিউশন অফিস হতে নগদ ৪৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা লুট হয়। ঘটনার সাথে জড়িতদের ধরতে অভিযানে নামে র‌্যাব। একপর্যায়ে ১০ জুলাই তাদের চৌকস আভিযানিক দল জানতে পারে, ঘটনার সাথে জড়িতরা চকরিয়া থানাধীন ২নং ওয়ার্ডের সিকদারপাড়ার জনৈক আনোয়ার মিয়ার বসতঘরে অবস্থান করছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে মো. সাইফুল ও মো. কফিল উদ্দিনকে গ্রেফতারপূর্বক তাদের দেখানো বসতঘরের বারান্দায় মাটির নিচে বস্তা মোড়ানো অবস্থা হতে নগদ ১৮ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, বিকাশ ডিস্টিবিউশন অফিসে নিরাপত্তার দায়িত্ত্বে নিয়োজিত ব্যক্তিগণ রাতের খাবার খেতে হোটেলে যাওয়ার সুযোগে বিকাশ ডিস্টিবিউশ অফিসের গ্রিলের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে বিদ্যুৎতের মেইন সুইচ বন্ধ করে দেন এবং কার্যালয়ের ভল্ট ভেঙ্গে ভল্টে রক্ষিত নগদ ৪৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা চুরি করে কৌশলে পালিয়ে যায়।

ঘটনায় আরো কারা জড়িত তার তদন্ত চলছে। পলাতক আসামীদের গ্রেফতার ও বাকী টাকা উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানান আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen + five =

আরও পড়ুন