পেকুয়ায় স্বামীর মামলায় স্ত্রী জেলহাজতে

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় স্বামী দায়ের করা মামলায় শারমিন আক্তারের (২১) নামের এক গৃহবধুকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

গতকাল ৩ ডিসেম্বর রাত ৭টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পেকুয়ার টইটং ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। জানা যায়, বিগত ২০১৮ সালের ১৯ আগষ্ট টইটং ইউনিয়নের ছনখোলার জুম এলাকার আব্দুস ছবুরের পুত্র আব্দুর রহিম (২৫) এর সাথে রাজাখালী ইউনিয়নের বামুলার পাড়া এলাকার হাফেজ আহমদের মেয়ে শারমিন আক্তারের (২১) বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তামিম (১) নামের এক শিশু সন্তান রয়েছে।

শারমিনের স্বামী আব্দুর রহিম বলেন, বিয়ের দুই বছর সুখে ছিল সংসার। এরপর স্ত্রী অবাধ্য হয়ে যায়। বাড়িতে নলকুপ বসানোর সময় নলকুপ মিস্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে শারমিন। এক বছরের দুধের শিশুকে ঘুমে রেখে নগদ টাকা, স্বর্ণসহ মুল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে ৮ মাস আগে মো. সোহেল নামের এক মিস্ত্রির সাথে পালিয়ে যায় শারমিন। ফিরিয়ে আনতে শত চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে শেষ পর্যন্ত চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। যার নং-সিআর-১২২৪/২১। সোহেল পেকুয়া সদর ইউনিয়নের নন্দীরপাড়া এলাকার মো. ভোল্লা প্রকাশ ভোলাইয়ার ছেলে।

এ প্রসঙ্গে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, একটি সিআর মামলার শারমিন আক্তার নামের এক গৃহবধুর নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকায় থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =

আরও পড়ুন