প্রচণ্ড তাপপ্রবাহে সুস্থ থাকার উপায়

fec-image

বেশ কয়েকদিন ধরে দেশজুড়ে প্রচণ্ড গরম আবহাওয়া বিরাজ করছে। অসহনীয় গরমে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

তবে গরমে তাপ তীব্র হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হিট স্ট্রোক প্রতিরোধের উপায় জানা জরুরি। এসময় হাইড্রেটেড থাকুন, লক্ষণগুলো জেনে রাখুন এবং জরুরি পরিস্থিতিতে দ্রুত ব্যবস্থা নিন।

তীব্র গরমের কারণে অসুস্থতার লক্ষণগুলোর মধ্যে রয়েছে শরীরের উচ্চ তাপমাত্রা (১০৪°ফারেনহাইট /৪০°সেলসিয়াসের উপরে), গরম এবং শুষ্ক ত্বক (কোনো ঘাম থাকবে না), দ্রুত স্পন্দন, তীব্র মাথাব্যথা, মাথা ঘোরা, বমি বমি ভাব, বিভ্রান্তি এবং অচেতনতা। আক্রান্ত ব্যক্তি অনেক সময় পেশী ক্র্যাম্প এবং দুর্বলতাও অনুভব করতে পারে।

নিরাপদ থাকার উপায়

সারাদিন প্রচুর পানি পান করুন, এমনকী যদি আপনি তৃষ্ণার্ত না-ও হন। ক্যাফেইন এবং অ্যালকোহল এড়িয়ে চলুন, কারণ এগুলো ডিহাইড্রেশন বাড়িয়ে দিতে পারে।

শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত পরিবেশ সন্ধান করুন বা বায়ু সঞ্চালনের জন্য ফ্যান ব্যবহার করুন। হালকা, ঢিলেঢালা পোশাক পরুন এবং বাইরে গেলে ছায়ায় থাকুন।

দিনের উষ্ণতম সময়ে কঠোর কার্যকলাপ এড়িয়ে চলুন। যদি আপনাকে শারীরিক পরিশ্রম করতেই হয় তবে ছায়াযুক্ত বা শীতল জায়গায় ঘন ঘন বিরতি নিন।

সূর্যের রশ্মি থেকে নিজেকে রক্ষা করতে সানস্ক্রিন, সানগ্লাস এবং একটি চওড়া টুপি পরুন। অতিরিক্ত ছায়ার জন্য ছাতা বা চাদর ব্যবহার করুন।

শিশু, বয়স্ক এবং অসুস্থদের প্রতি নজর রাখুন, কারণ তারা গরমের সময়ে আরও বেশি অসুস্থ হয়ে যেতে পারে।

যদি হিট স্ট্রোকের সন্দেহ হয় তাহলে আক্রান্ত ব্যক্তিকে দ্রুত একটি শীতল ও ছায়াযুক্ত জায়গায় নিয়ে যান, পোশাক ঢিলা করে দিন এবং ত্বকে ঠান্ডা পানি বা বরফের প্যাক লাগান। জ্ঞান ফিরলে পানিতে চুমুক বলুন, তবে অজ্ঞান হলে তরল দেবেন না। দেরি না করে জরুরি চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। হিট স্ট্রোক একটি মেডিকেল ইমার্জেন্সি যা অবিলম্বে চিকিত্সা না করা হলে জীবনের জন্য হুমকি হতে পারে।

এই গরমের হাইড্রেটেড থাকুন, অত্যধিক তাপের জায়গা এড়িয়ে চলুন, হালকা পোশাক পরুন এবং শীতল পরিবেশে বিশ্রাম নিন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: তাপপ্রবাহ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন