প্রধানমন্ত্রী বরাবরে নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে রাঙামাটিতে হেফাজতের স্মারকলিপি প্রদান

Hepajot-3

আলমগীর মানিক,রাঙামাটি:

কওমী মাদ্রাসা শিক্ষা কর্তৃপক্ষ আইন ২০১৩ জাতীয় সংসদে পাশ করা থেকে বিরত থাকা ও ঘোষিত ১৩ দফা বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। আজ বুধবার বিকেলে রাঙামাটি জেলার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমানা রহমান শম্পার মাধ্যমে এই স্মারকলিপি দেয় দলটির রাঙামাটি জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি জেলার হেফাজতের দায়িত্বপ্রাপ্ত সমন্বয়কারি হাফেজ মাওলানা এনায়েত হোছাইন, মাওলানা জাকির হোসেন, মাওলানা আব্দুর রহমান, হাজ্বী জহির আহাম্মদ, মোঃ রফিকুল ইসলাম ও জহির আহাম্মদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারলিপিতে হেফাজত ইসলামীর পক্ষ থেকে উল্লেখ করা হয়, কওমী মাদ্রাসা প্রধানত কুরআন সুন্নাহভিত্তিক পাঠ্যক্রমের আলোকে উন্নত নৈতিক চরিত্রের অধিকারি ধর্মতত্ত্ববিদ ও আদর্শ নাগরিক তৈরির বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এর অর্ন্তনিহিত তাৎপর্য, আবেদন ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান-অভিজ্ঞান ছাড়া কোনো ব্যবস্থা নীতিমালা বা তথাকথিত সংস্কার চাপিয়ে দেয়া হলে ঈমান আমলের এই সোনালী পরিবেশ ধ্বংস হয়ে যেতে বাধ্য, যা প্রকারান্তরে সাধারণ মুসলমানদের আক্বীদা-বিশ্বাস, আমল ও ধর্মীয় কর্মকান্ডের বুনিয়াদ ধ্বংস করার শামিল।

প্রদত্ত স্মারকলিপিতে আরো উল্লেখ করা হয়, সরকারের কোনো অনুদান ও সাহায্য ছাড়াই গড়ে উঠা এসব দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিগত প্রায় দুই’শ বছর যাবত স্বাধীন স্বকীয় অস্তিত্ব নিয়ে রাষ্ট্র ও রাজনীতির প্রভাব থেকে মুক্ত অবস্থায় পরিচালিত হয়ে আসছে। ধর্ম তার নিজস্ব অবয়বে বিকশিত হওয়ার সুযোগ পেয়েছে। অথচ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত এই বিধিবিধানের আওতায় আবদ্ধ করে স্বাধীনভাবে চলার পথ রুদ্ধ করে দিতে চাইছে। এসব প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা, ব্যবস্থাপনা, সিলেবাস ও শিক্ষানীতি সব কিছুই সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন ও তার ইচ্ছার তল্পীবাহক শক্তিতে রূপান্তরিত করার অপকৌশলের আশ্রয় নিয়েছে। আমাদের ধারনা এ সুযোগের পথ ধরে সরকার ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করতে চাচ্ছে এবং ধর্মীয় শিক্ষাকে তাদের অভিপ্রায়ের অনুকুলে পরিচালিত করার সকল ব্যবস্থা এ নীতিমালার মাধ্যমে চুড়ান্ত করার অপকৌশলের আশ্রয় নিয়েছে। এই নীতিমালা বাস্তবায়িত হলে ধর্মীয় স্বাধীনতাও থাকবেনা এবং ধর্মীয় শিক্ষার স্বাধীন পথ চলার ও ধর্মীয় আক্বীদা-বিশ্বাস অক্ষুন্ন থাকার পথও রুদ্ধ হয়ে যাবে।

তাই এই আইনের খসড়া নীতিমালাকে আইনে রূপান্তরিত করার তৎপরতা অবিলম্বে বন্ধ করার দাবির পাশাপাশি দেশ ও জাতির কল্যাণে ঘোষিত ১৩ দফা দাবি বাস্তবায়ন করার আহবান জানানো হয়েছে হেফাজত ইসলামের পক্ষ থেকে।

অন্যথায় দেশের সকল কওমী মাদরাসার পক্ষ থেকে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এব্যাপারে কঠিন কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়েছে স্মারকলিপিতে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + 13 =

আরও পড়ুন