প্রসবের সময় নবজাতকের কপাল কেটে মৃত্যুর অভিযোগ

fec-image

বান্দরবান সদর হাসপাতালে ডেলিভারি করানোর সময় কপাল কেটে এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে ডাক্তার ও অভিভাবকদের রয়েছে পাল্টা অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৮টায় বান্দরবান সদর হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নবজাতক বান্দরবান পৌরসভাধীন ৮নং ওয়ার্ড হাফেজ ঘোনা,বরিশাল পাড়া এলাকার পিংকি ও মাহাবুব আলম দম্পত্তির অনাগত প্রথম সন্তান ।

পিংকির ভাই মো. হাসেম জানান, প্রসব ব্যথা অনুভব হলে পিংকিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সকাল থেকে বেশ কয়েকবার রোগীর অবস্থা ডাক্তারদের জিজ্ঞাসা করলে তারা বরাবরই বাচ্চা ও মা দুইজনের অবস্থা ভালো বলে জানান। কিন্তু সন্ধ্যার পর তারা অবস্থা খারাপ বলে জানিয়ে সিজার করতে হবে বলে জানান। সন্ধ্যা ৮ টার পর অপারেশন থিয়েটারের ভিতর হতে কাপড়ে মোড়ানো মৃত বাচ্চা হয়েছে বলে দেওয়া হয়। কাপড় খুলে দেখা যায় বাচ্চার কপালে লম্বা কাটা দাগ। এনিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে ডাক্তারেরা কোনরুপ সদ উত্তর দিতে পারেনি। সুষ্ঠু বিচারের দাবি করেন অভিভাবক সকলেই।

বান্দরবান সিভিল সার্জন ডা. নিহার রঞ্জন নন্দী জানান,সরকারি নির্দেশনা অনুসারে নরমাল ডেলিভারি করানোর চেষ্টা করে ছিল প্রসূতি ডাক্তার।
তবে ডেলিভারি করানোর সময় প্রসূতি মা দূর্বল হয়ে যাওয়ায় ফোর্সেস ডেলিভারি করাতে যন্ত্রপাতি ব্যবহার করাতে গিয়ে অপ্রত্যাশিত ভাবে নবজাতকের কপালে কেটে গেছে।

বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি জানান, ডাক্তার বলছে ডেলিভারির আগে নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে কিন্তু অবিভাবকেরা বলছে ডেলিভারি করাতে গিয়ে নবজাতকটি মারা গেছে। এনিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 11 =

আরও পড়ুন