“দুর্বৃত্তদের অতর্কিত ব্রাশফায়ারে গুরুতর আহত হন শিক্ষিকা ফুলকুমারী চাকমা”

ফুলকুমারীর উন্নত চিকিৎসার দাবীতে লংগদুতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

লংগদু উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

বেটলিং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ফুলকুমারী চাকমার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য প্রধান মন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করে মানববন্ধন করেছে লংগদু উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।

মানববন্ধ শেষে লংগদুু উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় গত ১৮ মার্চ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণের দায়িত্ব পালন শেষে উপজেলা সদরে ফেরার পথে দুর্বৃত্তদের অতর্কিত ব্রাশফায়ারে গুরুতর আহত হন শিক্ষিকা ফুলকুমারী চাকমা।

মঙ্গলবার, লংগদু উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি সুচিকা চাকমার সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

এসময় লংগদু উপজেলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সমিতির সভাপতি স্বর্ণ কান্তি চাকমা, উপজেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মীর শাহ আলম চৌধুরী, সহকারী শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম সহ শিক্ষকগণ এতে উপস্থিত ছিলেন।

স্মারকলিপিতে শিক্ষক নেতৃবৃন্দরা জানান, গত ১৮ মার্চ বাঘাইছড়িতে উপজেলা নির্বাচনের ভোট গ্রহণের দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তাদের উপর দুর্বৃত্তদের অতর্কিত ব্রাশফায়ারে ৮ জন নিহত এবং ৩৩ জন আহত হন। প্রধানমন্ত্রী এবং নির্বাচন কমিশনের অশেষ আন্তরিকতায় আহতদেরে সুচিকিৎসার জন্য তাৎক্ষনিকভাবে হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম এবং ঢাকা-সিএমএইচ-তে নেওয়া হয়। যা বাংলাদেশের নির্বাচনের ইতিহাসে দুর্যোগকালীন গুরুতর সমস্যা মোকাবেলার ক্ষেত্রে সক্ষমতার একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

এই জঘন্যতম কাপুরুষিত ঘটনায় বাঘাইছড়িবাসীর সাথে লংগদুবাসী ও সহকর্মীবৃন্দ স্বজন হারানো বেদনায় গভীর দুঃখে ভারাক্রান্ত হলেও আপনার এই মহতি উদ্যোগে বাঘাইছড়িবাসী সহ বাংলাদেশের সকল জনগনের জেগে উঠার ক্ষেত্রে প্রেরণা যোগাবে বলে আমরা দৃড়ভাবে বিশ্বাস করি।

প্রধান মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তারা বলেন, বাঘাইছড়িতে উক্ত ঘটনার সময় অন্যান্যদের সাথে গুরুতর আহত বেটলিং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ফুলকুমারী চাকমা অদ্যবধি ঢাকা-সিএমএইচ-এ চিকিৎসাধীন আছেন এবং দুঃখ যন্ত্রনায় কাতর হয়ে হাসপাতাল বেডে চটফট করছেন।

সেখানকার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে, তাকে সুস্থ করতে হলে দেশের বাইরে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা করাতে হবে। এমতাবস্থায় রাষ্ট্রের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে গুরুতর আহত হওয়া এই শিক্ষিকার পরিবারের পক্ষে বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করা সম্ভব নয়। তাই মাননীয় প্রধান মন্ত্রী আপনার হস্তক্ষেপ ছাড়া তাকে বাঁচানো কোনভাবে সম্ভব নয়। শিক্ষিকা ফুলকুমারীর শিশু সন্তানরা যেন তাদের মাকে না হারায় তার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নিবেন এমনটিই আশা করছেন সকলেই।

মানববন্ধন শেষে শিক্ষক নেতৃবৃন্দরা লংগদু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রবীর কুমরা রায় এর নিকট প্রধান মন্ত্রী বরাবর লিখিত স্মারকলিপিটি প্রদান করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেন, এটি যথাযথভাবে প্রধান মন্ত্রীর দপ্তরে পাঠিয়ে দেবেন বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: মানববন্ধন, লংগদু
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + five =

আরও পড়ুন