বনবিভাগের অভিযানে ১৭০ ঘনফুট কাঠ উদ্ধার, গাড়ি জব্দ

fec-image

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিশেষ টহল দলের স্পেশাল টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পৃথক অভিযান চালিয়ে চকরিয়া ও রামু থেকে ১৭০ ঘনফুট গোলকাঠ উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় পাচার কাজে ব্যবহৃত কাঠভর্তি একটি জিপ জব্দ করা হয়।

সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার মানিকপুর সড়কের সুরাজপুর এলাকা ও রামু থেকে উত্তর বনবিভাগের বিশেষ স্পেশাল টিমের ওসি একেএম আতা এলাহীর নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

বনবিভাগ সূত্রে জানাগেছে, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিশেষ টহলদল স্পেশাল টিমের ওসি একেএম আতা ইলাহী নেতৃত্বে পৃথক দুটি স্থানে গোপন সংবাদের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করে ১৭০ঘনফুট গোলকাঠ উদ্ধার পূর্বক জব্দ করেছে। এসময় কাঠ পাচার কাজে ব্যবহৃত একটি জীপ গাড়িও জব্দ করা হয়। সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার মানিকপুর সড়কের সুরাজপুর এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে ৭০ঘনফুট গোলকাঠ গাছ ভর্তি জীপগাড়িসহ জব্দ করেন। জব্দকৃত ওই কাঠের যার বাজার মূল্য ৫০ হাজার টাকা।

এরই পূর্বের দিন রাতে এ স্পেশাল টিম রামু থানার পাশে আনুমিয়ার করাতকলের সন্নিকটে বাঘখালী রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা সরওয়ার জাহানের যৌথ সার্বিক সহযোগিতায় অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে পাচারের উদ্দেশ্যে চোরাইকৃত ১০০ ঘনফুট গর্জন কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে । যার বাজার মূল্য ১ লক্ষ টাকা। বনবিভাগের পৃথক এ দুটি অভিযানে ১৭০ঘনফুট কাঠসহ পাচার কাজে ব্যবহৃত একটি জব্দ করা হয়েছে।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের সহকারী বনসংরক্ষক (এসিএফ) সোহেল রানা বলেন, বিশেষ টহল দলের অভিযানে ১৭০ ঘনফুট গর্জন ও গোল কাঠসহ জিপ গাড়ি জব্দ করা হয়েছে ।  গাড়িসহ জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান। সরকারি বনভূমি, বনজসম্পদ সুরক্ষা ও সংরক্ষণে এবং বন অপরাধ দমনে বনবিভাগকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান সকলের কাছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 3 =

আরও পড়ুন