বাংলাদেশসহ ১০৬টি দেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস

fec-image

সম্প্রতি হ্যাকাররা সারা বিশ্বের প্রায় ৫৩ কোটি ৩০ লাখ ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস করেছেন, যাদের মধ্যে রয়েছেন ৩৮ লাখ ১৬ হাজার ৩৩৯ বাংলাদেশি। সাইবার নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি স্বল্পপরিচিত ফোরামে এই তথ্য ফাঁস করা হয়েছে যা সবার জন্যে উন্মুক্ত।

এক স্থানীয় সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) ডেটাগুলো পর্যালোচনা করে জানিয়েছেন চুরি হওয়া তথ্যের মধ্যে রয়েছে ফেসবুক আইডি নম্বর, প্রোফাইলে দেওয়া নাম, ইমেইল অ্যাড্রেস, বসবাসের ঠিকানা, ব্যবহারকারী পুরুষ না নারী, পেশাসহ আরও বেশ কিছু তথ্য।

ফেসবুক প্রোফাইল তৈরি করার সময় একজন ব্যবহারকারী যেসব তথ্য দিয়ে থাকেন মূলত সেগুলোই হ্যাকড হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে ব্যাপারটি আরও জটিল আকার ধারণ করেছে কারণ সেখানে ফোন নম্বরও পাওয়া যাচ্ছে, যা ব্যবহারকারীরা সব সময় সবার জন্য উন্মুক্ত রাখেন না।

একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের কাছে ফেসবুক তথ্য চুরির ঘটনাটি নিশ্চিত করে মন্তব্য করেছে যে ২০১৯ সালে এটি তাদের নজরে এসেছিল। তারা ফেসবুকের ‘কন্টাক্টস ইম্পোর্টার’ ফিচারের কিছু কারিগরি দুর্বলতা ঠিক করে সমস্যাটির সমাধান করেছে।

কন্টাক্টস ইম্পোর্টারের মাধ্যমে হ্যাকাররা চাইলে ব্যবহারকারীদের প্রোফাইলের সঙ্গে এলোমেলোভাবে ফোন নম্বর জুড়ে দিতে পারতেন। যাদের তথ্য চুরি গিয়েছে তাদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা নিয়ে বিশেষজ্ঞরা চিন্তিত, কারণ এই ডেটা এখন পাবলিক ডোমেইনে পাওয়া যাচ্ছে এবং হ্যাকাররাও ধরা পড়েননি।

হ্যাকিংয়ের এ ঘটনায় ১০৬টি দেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য চুরি গিয়েছে। বাংলাদেশি ছাড়াও প্রায় ৬০ লাখ ভারতীয়, ১ কোটি দশ লাখ ব্রিটিশ ও ৩ কোটি ২০ লাখ মার্কিন নাগরিকের তথ্য চুরি হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + 11 =

আরও পড়ুন