বাইশারীতে এক উপজাতীয় কিশোরীর আত্মহত্যা

fec-image

বান্দরবানের নাইক্ষংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড দৈয়ার বাপের মার্মা পাড়ায় এক উপজাতীয় কিশোরী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। কিশোরীর নাম নাইএছা মার্মা (১৫)।

সে বাইশারী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী। তার পিতার নাম মংলা ওয়াইন মার্মা ও মাতা উখেনু মার্মা। ঘটনাটি ঘটেছে ২৭ এপ্রিল বেলা সাড়ে এগারোটায় নিজ বাড়িতে।

আত্মহত্যাকারী কিশোরীর মাতা উখেনু মার্মা জানান, তিনি প্রতিদিনের ন্যায় নিজের ধান ক্ষেত দেখাশোনা ও পরিচর্যার জন্য সকাল ৮টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। এর আগে মেয়েকে বাড়ির কাজ কর্মের জন্য বকাবকি করছিল এবং বাড়িতেই যেন সবসময় থাকে, কোনদিকে ঘুরাঘুরি থেকে বিরত থাকে। যার ফলে মেয়ে ও মার সাথে ঝগড়া বিবাদ হয়। তার পিতা রাবার বাগানে চাকরির সুবাধে ভোরে বাগানে চলে যায়। বাড়িতে সে একাই ছিল।

কাজ শেষে বাড়িতে এসে মা দেখতে পায় মেয়ে ঘরের চালের সাথে ওড়না বেঁধে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তখন আশপাশের লোকজনের সহযোগিতায় ওড়না কেটে তাকে নামানো হয়। ঐ অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা উপজাতীয় নেতা নিউলামং মার্মা জানান, বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মেয়েটি তার মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে বলে তিনি মনে করেন।

আত্বহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (পরিদর্শক) এনামুল হক ভুঁইয়া বলেন, খবর পেয়ে তিনি সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন। এ ব্যাপারে নাইক্ষংছড়ি থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। যেহেতু অভিযোগকারী নেই, তাই লাশ সৎকারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

কিশোরীর পিতা মংলাওয়াই মার্মা জানান, ২৭ এপ্রিল রাতেই মৃত দেহ স্থানীয় শ্মশানে অন্তেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা, উপজাতীয়, কিশোরী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 2 =

আরও পড়ুন