বাঘাইছড়িতে পানিবন্দী ১০ হাজার মানুষ, নৌকায় সাজেক ছাড়ছেন পর্যটকরা

fec-image

গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে কাচালং নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বইছে। এতে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার নিম্নাঞ্চলগুলো প্লাবিত হওয়ায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন উপজেলার প্রায় ১০ হাজার মানুষ।

উপজেলা শহরের সঙ্গে ছয়টি ইউনিয়নের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে। এদিকে নৌকায় সাজেক ছাড়ছেন আটকেপড়া পর্যটকরা।

গতকাল বিকেলে উপজেলার নারকেল বাগান এলাকায় সড়ক পার হওয়ায় সময় কৃতিত্ব চাকমা নামের এক স্কুল ছাত্র কাচালং নদীর স্রোতে ভেসে গিয়ে নিখোঁজ রয়েছে। গত দু’দিনে তার কোনো হদিস মেলেনি।

উপজেলা প্রশাসন ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতায় ৫৫টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলেছে। সেখানে বর্তমানে কয়েকশ’ বানভাসি আশ্রয় নিয়েছেন। বাঘাইছড়ি পৌরসভা এবং উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের খাবার প্রদান করা হচ্ছে।

নদীর পানিতে উপজেলার শতাধিক পুকুরের মাছ ভেসে গেছে, ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। তারা বলছেন, এলাকাগুলো থেকে নদীর পানি কিছুটা নেমে গেছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে আরও সময় লাগবে।

সাজেকের কয়েকটি স্থান থেকে পানি সরে যাওয়ায় পর্যটকরা হোটেল ছাড়তে শুরু করেছে। বাঘাইহাট এলাকায় এখনো পানি থাকায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাদের নৌকা করে পারাপার করে দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিরীন আক্তার বলেন, পানি এখনো সরে যায়নি। ক্ষতিগ্রস্তদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন