বাঘাইছড়িতে করোনা মোকাবেলায় ১৭২ মে. টন চাল ও নগদ ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা বরাদ্দ

fec-image

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ১৭২ মেট্রিক টন চাউল ও নগদ ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

১৩ মে (বুধবার) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব (জিতু) এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ত্রান ও দূর্যোগ মন্ত্রণালয় স্বারক নং- ৫১.০০.০০০০.৪২৩.৪০.০০৫.২০২০.-২২২, অদ্য ৭ এপ্রিল ২০২০ ইং তারিখে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের মাধ্যমে বাঘাইছড়ি উপজেলায় এই বরাদ্দ ও অর্থ সহায়তা আসে।

এরই মধ্যে উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নের জনসংখ্যা ও আয়তনের অনুপাতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় স্বচ্ছতার ভিত্তিতে সমভাবে বন্টন করা হয়েছে, বাকী খাদ্যশস্য ও অর্থও একই নিয়মে বন্টন করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানাযায় প্রাপ্ত বরাদ্দ ৩ ভাগে, জিআর ক্যাশ নগদ টাকা ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা, জিআর চাউল ১৭২ মেট্রিক টন, শিশু খাদ্য ক্রয় বাবদ ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। উক্ত বরাদ্দের জিআর ক্যাশ নগদ টাকার আওতায় ১০ হাজার ২৫৮ পরিবারের ৪১ হাজার লোক উপকার ভোগী হয়, জিআর চাওলের আওতায় ১৪ হাজার ২ শত পরিবারে ৭১ হাজার ৮ শত লোক উপকার ভোগী হয়, এবং জিআর শিশু খাদ্যের আওতায় ১ হাজার ৯৪০ পরিবারে ৩ হাজার ৮৮০ শিশু এই উপকার ভোগী হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব (জিতু) বলেন, জনসংখ্যার অনুপাত ও আয়তনের দিক বিবেচনায় সাজেক ইউনিয়নে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়, উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে ট্যাগ অফিসার নিয়োগ ও জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে শতভাগ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে এসব বরাদ্দ বিতরণ করা হয়েছে। এখনো জিআর ক্যাশের আওতায় নগদ ১ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা, জিআর চাউলের আওতায় ৩০ মেট্রিকট ন চাউল, এবং জিআর শিশু খাদ্যের আওতায় ৪৫ হাজার টাকা মজুদ রয়েছে, এরইমধ্য উপকার ভোগীদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে শীঘ্রই স্বচ্ছতার ভিত্তিতে বিতরণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনা, বরাদ্দ, বাঘাইছড়িতে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven + 18 =

আরও পড়ুন