বাঙালিদের নিজস্ব জায়গায় নির্মানাধীন বসতঘর ভেঙে দেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

fec-image

খাগড়াছড়ির মহাছড়ি উপজেলার মাইসছড়িতে ৫ একর জায়গা নামক স্থানে বাঙালিদের নিজস্ব জায়গায় নির্মানাধীন বসতঘর রাতের আঁধারে ভেঙে দেওয়া, প্রাণনাশের হুমকি, দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী ও স্থানীয় এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের নাম জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এবং মিথ্যা বানোয়াট গুজব ছড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে পার্বত্যচট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ ও সচেতন নাগরিক সমাজ।

১০ অক্টোবর (রোববার) সকাল সাড়ে ১০টায় মাইসছড়ি বাজারে এ বিক্ষোভ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, পার্বত্যচট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ এর জেলা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আবদুল মজিদ, পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা পরিষদের সভাপতি সালমা আহমদ মৌ, পার্বত্যচট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ এর জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন, ছাত্রনেতা মো: কায়েস, সচেতন নাগরিক সমাজের আজিজ মেম্বার, ফজলুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, মহর আলী প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, এই এলাকায় ভুমি বিরোধের জটিলতা নিয়ে পাহাড়ি বাঙালি দীর্ঘদিনের সমস্যা। বাঙালিরা অভিযোগ করেন, পুনর্বাসিত বাঙালিদেরকে সরকার থেকে দেয়া কবুলিয়তের জায়গায় বসতঘর নির্মাণ করতে গেলে ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীরা সাধারণ পাহাড়িদের লেলিয়ে দিয়ে ঘর নির্ণামানে বাঁধা দেয় এবং নির্মানাধীন বসতঘর রাতের আঁধারে ভেঙে দেয় আর জীবন নাশের হুমকি দিয়ে থাকে। মানববন্ধনে বক্তারা ভুমি বিরোধ নিরসনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে পাহাড়ে প্রত্যাহারকৃত সেনা ক্যাম্প পুনঃস্থাপন করার জোর দাবি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + five =

আরও পড়ুন