বাঙালি যু্বকের সাথে প্রেম : উপজাতি নারীর বিষপানে আত্মহত্যা!

fec-image

বাঙালি যুবকের সঙ্গে মোবাইল ফোনে দীর্ঘ দুই বছরের প্রেম। অতপর বিচার শালিশের পর বিষপানে আহত্মহত্যা করেছে এক উপজাতী নারী। গত ২৭ অক্টোবর ঘটনাটি ঘটেছে বান্দরবানের থানচি উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৯কিলো এলাকায়।

তবে ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছে। পুলিশ বলছে তদন্তের পর ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, থানচি উপজেলা সদরের থাওয়াই পাড়া গ্রামের কিরু ওয়াং এর মেয়ে তুমওয়াই ম্রোর সাথে দুই বছর ধরে মুঠোফোনের মাধ্যমে সম্পর্ক গড়ে উঠে মোঃ মুরশেদ নামে এক বাঙালি যুবকের।

সে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার রায়পুর গ্রামের ছাবের আলীর ছেলে। থানচি ৯কিলো এলাকায় রাস্তার কাজে নিয়োজিত শ্রমিকের কাজ করতো এই যুবক।

এই ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে পাড়ার কারবারী (পাড়া প্রধান)সহ স্থানীয়রা সম্প্রতি থানচি ৯কিলো এলাকায় বিচার শালিসে অংশ নেয়।

বিচারে বাঙালি যু্বক মুরশেদকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। কিন্তু বিচারের এই আদেশ মানতে পারেনি উপজাতীয় ওই নারী। পরে সে কিটনাশক পান করে।

এসময় পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরবর্তী অবস্থার অবনতি হলে বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতাল হয়ে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর মোর্শেদ নামে ওই যুবককে পুলিশ আটক করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

এদিকে ঘটনার বিষয়ে থানচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাইফুদ্দিন আনোয়ার বলেন- ঘটনার বিষয়ে ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছে। প্রেমঘটিত কারণে বিষপান কিনা তা তদন্তের পর জানা যাবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা, উপজাতি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 + seventeen =

আরও পড়ুন