মাইনীমুখ বাজার ব্যবসায়ীদের নিয়ে দুর্যোগ প্রতিরোধমূলক সচেতনতা সভা

‘বাজারে অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধে সচেতনতা, সরঞ্জামদি হেফাজত ও বাজার কমিটির সহযোগিতা প্রয়োজন’

fec-image

রাঙামাটির লংগদুতে মাইনীমুখ বাজার ব্যবসায়ীদের নিয়ে সকল দুর্যোগ প্রতিরোধমূলক সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (২২ জানুয়ারি) সন্ধ্যার পর মাইনীমুখ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে বাজার প্রাঙ্গণে কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সোহেলের সঞ্চালনায় ও সভাপতি আব্দুর রশীদের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন, লংগদু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী ঝান্টু, মাইনীমুখ ইউপি চেয়ারম্যান কামাল হোসেন কমল, প্রবীণ সাংবাদিক মো. এখলাস মিঞা খাঁন, মাইনীমুখ বাজার চৌধুরী দেবো কুমার চাকমা, ব্যাবসায়ী কল্যাণ সমুতির সি. সহসভাপতি খায়রুল আলম সাজু, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী মাওলানা এএলএম সিরাজুল ইসলাম ।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাজার কমিটির সহসভাপতি জামাল উদ্দিন।

এসময় বাজারে সকল ব্যবসায়ী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বক্তারা বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধে নিজেদের সচেতনতা অধিক জরুরি। বাজারে যথেষ্ট পানির ব্যবস্থাসহ অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামদি হেফাজত করা এবং বাজার কমিটির সহযোগিতা নেওয়া প্রয়োজন।

বক্তারা আরও বলেন, মাইনীমুখ বাজার হচ্ছে পার্বত্য এলাকার একটি সর্ববৃহত বাজার। এবাজারকে নানাবিধ ষড়যন্ত্র চলছে। দীর্ঘ সময় ধরে চলা মাইনীমুখ বাজার থেকে মুসলিম ব্লগ এলাকা পর্যন্ত রাস্তাটির কাজ শেষ করা হচ্ছে। রাস্তার ধুলাবালি, কংক্রিটের কারণে যানবাহে চলাচল মুশকিল হয়ে পড়েছে এলাকাবাসীর। রাস্তায় চলাচলের সময় এসব ধূলবালিতে জনসাধারণের বিভিন্ন অসুখ লেগেই আছে। এসব কারণে বিভিন্ন এলাকা থেকে পণ্য বেচা-বিক্রির লোকজন মাইনীমুখ বাজারে না এসে আশেপাশে অঘোষিত বাজার থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় মালামাল কেনাবেচা করছেন।

অপরদিকে বক্তারা আরও বলেন, লংগদুবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি অনুযায়ী বাইট্টাপাড়া বাজারে পাশে একটি ফায়ার স্টেশন নির্মাণ করা হয়। দুঃখের বিষয় নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার ৬ মাস পার হলেও আজ পর্যন্ত এটিতে প্রয়োজনীয় গাড়ি ও সরঞ্জামাদি ও লোকবল সরবরাহ না দেওয়ায় বাইট্টাপাড়া বাজার অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত হল।

বক্তারা আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে যদি মাইনীমুখ বাজার-মুসলিমব্লগ পর্যন্ত রাস্তার কাজ শেষ না হয় এবং আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে যদি বাইট্টাপাড়া ফায়ার স্টেশনে প্রয়োজনীয় গাড়ি, যন্ত্রপাতি ও লোকবল সরবরাহ না দেওয়া হয় তাহলে মানববন্ধনসহ বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে বক্তারা হুশিয়ার উচ্চারণ করেন।

শেষে মাইনীমুখ ইউপি সদস্য আবুল কাশেমকে সভাপতি ও জিসান আহম্মেদকে সাধারণ সম্পাদক করে মাইনীমুখ বাজার অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন