বান্দরবানে কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু

fec-image

বান্দরবানে দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু হয়েছে। শুক্রবার (৬ নভেম্বর) বান্দরবান সদরের পারাহিতা সংঘরাজিতা বৌদ্ধ বিহারের) ৩ দিন ব্যাপী কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে বান্দরবান, রাঙ্গামাটি , খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের শতাধিক বৌদ্ধ ভিক্ষু অংশ নিচ্ছেন। এতে ধর্মদেশনা প্রদান করেন বান্দরবানের রোয়াংছড়ি কেন্দ্রীয় জেতবন বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ সংঘনায়ক ভদন্ত উ: উইচারিন্দা মহাথেরো।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈ হ্লা, সদস্য ক্যসাপ্রু মারমা, পারাহিতা সংঘরাজিতা বৌদ্ধ বিহারের দায়ক-দায়িকা, উপাসক-উপাসিকাবৃন্দসহ বিভিন্ন বৌদ্ধ ভিক্ষুরা অংশ নেয়।

প্রথমদিনে পঞ্চশীল প্রার্থনা, অষ্টপরিস্কার দান, সংঘদান, চীবর উৎর্সগসহ নানা ধর্মীয় কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা উদযাপন করছে কঠিন চীবর দান অুনষ্ঠান।

বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা জানান, কঠিন চীবর দানোৎসবে বৌদ্ধ ধর্মের নারীরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে সুতা থেকে কাপড় (চীবর) বুনে, রং করে সেলাই বিহীন চীবর ধর্মীয় গুরু ভিক্ষুদের দান করে। দানোৎসবের মাধ্যমে কায়িক, বাচনিক ও মানসিক পূণ্য সঞ্চয় হয় বলেই বৌদ্ধ শাস্ত্রে এই দানকে ‘শ্রেষ্ঠ দান ‘ কিংবা কঠিন চিবর দান বলে। চীবর তৈরি করে ভিক্ষুদের দানোৎসবে জেলার বিভিন্ন পাড়া থেকে শতাধিক বিভিন্ন বয়সের নারী অংশ নিয়েছে। জেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব চলবে মাস জুড়ে।ৃ

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কঠিন চীবর দানোৎসব, বান্দরবান
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − fifteen =

আরও পড়ুন