বান্দরবানে ভাল্লুকের আক্রমণে আহতদের হেলিকপ্টারে চট্টগ্রাম পাঠানো হয়েছে

fec-image

বান্দরবানের চিম্বুকে জুমের কাজ করতে গিয়ে ভাল্লুকের হামলার শিকার হয়ে আহত হয়েছে পাড়া কারবারীসহ ৩জন। পরে সেনাবাহিনী তাদের উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম সিএমএইচ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

আহতরা হলেন, পাড়া কারবারী ও য়্যংওয়াই ম্রো, পিং রিংরাও ম্রো ও মাংলিও ম্রো (১০)। তাদের বাড়ি বান্দরবানের চিম্বুক পাড়ায়।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে টংকাবতী ইউনিয়নের চিম্বুক পাড়ার ১৮ মাইল নামক স্থানে ঘটনাটি ঘটে।

সেনাসূত্রে জানাযায়, কাজের তাগিদে পাড়া কারবারী ও য়্যংওয়াই ম্রো, রিংরাও ম্রো ও মাংলিও ম্রো (১০) জুম চাষের জন্য গেলে সেখানে তাদের উপর ভাল্লুক হামলা চালায়। এসময় ভাল্লুকটি পিং রিংরাও ম্রো এর চোখসহ মুখের একাংশ উপড়ে ফেলে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহতদের প্রথমে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের চট্রগ্রামে রেফার করে। কিন্তু আর্থিক সংকটের কারণে সেনাবাহিনীর নিকট শরণাপন্ন হলে বান্দরবান ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল জিয়াউল হকের নির্দেশক্রমে বান্দরবান ৭ ফিল্ড এম্বুলেন্স প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হেলিযোগে চট্টগ্রামে পাঠানো হয়।

বান্দরবান ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল জিয়াউল হক জানান, উন্নত চিকিৎসার জন্য সেনাবাহিনী নিজস্ব হেলিকপ্টারে করে আহতদের চট্টগ্রাম নিয়ে গেছে। পাহাড়ের মানুষের উন্নয়নের জন্য সেনাবাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও তাদের একার্যক্রম চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 3 =

আরও পড়ুন