‘বিতর্কের বিশ্বকাপ’-এ বিজয়ী হয়ে ইতিহাস গড়ল চকরিয়ার সন্তান সৌরদীপ পাল

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার হারবাং এলাকার কৃতি সন্তান ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র সৌরদীপ পাল ‌‘বিতর্কের বিশ্বকাপ’-এ বিজয়ী হয়ে ইতিহাস গড়ে বিশ্ব জয় করেছেন। বেলগ্রেড ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটিজ ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপ (ডব্লিউইউডিসি) ২০২২ এর প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো বিজয়ী হয় বাংলাদেশ।

আন্তর্জাতিক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অক্সফোর্ড, ক্যামব্রিজ, হার্ভার্ডের মত টপ র‌্যাংকধারী সব বিশ্ববিদ্যালয়কে পেছনে ফেলে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার মধ্য দিয়ে ‘বিতর্কের বিশ্বকাপ’ জিতে নেন বাংলাদেশের ব্রাক ইউনিভার্সিটি। ‘বিতর্কের বিশ্বকাপে’ বিজয়ী টিমের অপর সদস্য হলেন, সাজিদ আসবাত খন্দকার। তারা দুই জনই ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

চকরিয়ার কৃতি সন্তান সৌরদীপ পাল ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতিতে মাস্টার্স করছেন। এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ থেকে বিবিএ ও নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন।

বিশ্ববিতর্কে এই শিরোপা জয়ের মাধ্যমে মহাদেশীয় ইতিহাস তৈরি করেছে বাংলাদেশের মেধাবী ছাত্র সৌরদীপ ও সাজিদ।

এশিয়ান দেশ থেকে ডব্লিউইউডিসি ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়া প্রথম দল হিসাবে এই ইতিহাস গড়লো। বিশ্বের কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়কে পেছনে ফেলে বিজয়ীর শিরোপা জিতে নেন বাংলাদেশী এ দুই মেধাবী ছাত্র।

বুধবার (২৭ জুলাই) ব্র্যাক-এর প্রতিনিধিত্বকারী সাজিদ আসবাত খন্দকার ও সৌরদীপ পাল বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় প্রতিযোগিতার ফাইনালে অংশ নিয়ে এই শিরোপা জিতে নেন। এটাই বাংলাদেশের প্রথম প্রাপ্তি। এ টুর্নামেন্টটিকে ‘বিতর্কের বিশ্বকাপ’ বলা হয়।

জানা গেছে, টুর্নামেন্টের প্রাথমিক রাউন্ডে ওপেন ক্যাটাগরিতে পঞ্চম স্থানে ছিলেন সাজিদ এবং সৌরদীপ। এরপর তারা ফাইনাল প্রতিযোগিতায় উঠে আসেন। ফাইনাল পর্বে তারা প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ সিঙ্গাপুর এবং অ্যাতেনিও ডি ম্যানিলা ইউনিভার্সিটির মুখোমুখি হন। প্রতিযোগিতায় সবাইকে পেছনে ফেলে ৭৩৩ ও ৭৩০ পয়েন্ট পেয়ে বিজয়ী হন তারা।

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি ইংরেজিকে দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে ব্যবহারকারী বিভাগে সাজিদ আসবাত খন্দকার দ্বিতীয় শ্রেষ্ঠ বক্তা হয়েছেন এবং সৌরদীপ পাল নির্বাচিত হয়েছেন ষষ্ঠ শ্রেষ্ঠ বক্তা হিসাবে। এছাড়াও ওপেন ক্যাটাগরিতে যৌথভাবে নবম শ্রেষ্ঠ বক্তা হয়েছেন সাজিদ আসবাত খন্দকার।

সাজিদ আসবাত খন্দকার এবং সৌরদীপ পল দুজনই ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে পড়ছেন। এই জুটি দেশে-বিদেশে এর আগেও বেশ কয়েকটি প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। তাদের সাফল্যের অন্যতম আরও একটি অর্জন ছিল কেমব্রিজ ইন্টারভার্সিটি ২০২১–এর চ্যাম্পিয়নশিপ।

‘বিতর্কের বিশ্বকাপ’-২০২২ এ সৌরদীপ পাল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্যাপারে খাইরুল বশর সোহেল বলেন, ‘দেশের এই কৃতিত্বে আমাদের চকরিয়াবাসীর জন্য সবচেয়ে অহংকারের বিষয় হলো চ্যাম্পিয়ন হওয়া টিমের একজন সদস্য আমাদের চকরিয়ার হারবাংয়ের কৃতিসন্তান সৌরদীপ পাল। চকরিয়ার ছেলের এমন বিশ্বজয়ে গর্বে বুকটা ভরে উঠেছে। তার উত্তরোত্তর সাফল্য ও সমৃদ্ধি কামনা করছি। অভিনন্দন প্রাণের বাংলাদেশ। অভিনন্দন আমাদের চকরিয়ার (হারবাং) গর্ব তুখোড় মেধাবী প্রিয়মুখ সৌরদীপ পাল।’

উল্লেখ্য, প্রতিযোগিতার ফাইনাল পর্বটি বেলগ্রেড ডাব্লুইউডিসি লাইভ স্ট্রিমস ফেসবুক পেজে লাইভ স্ট্রিম করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: চকরিয়া, বিতর্ক বিশ্বকাপ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven + eight =

আরও পড়ুন