বিশ্বায়নের যুগে দক্ষ জনশক্তি তৈরীর প্রত্যয়ে সীমান্ত কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ

fec-image

বর্তমান বিশ্বায়নের প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে দক্ষ জনশক্তি তৈরীর লক্ষ্য নিয়ে সীমান্ত কলেজ নামের প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দক্ষ মানব সম্পদ তৈরিতে প্রযুক্তি সমৃদ্ধ শিক্ষার বিকল্প নেই। মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করাই আমাদের লক্ষ্য। প্রয়োজনে সর্বোচ্চ সম্মানি দিয়ে নিয়োগ দেয়া দেশ সেরা শিক্ষকদের।

রবিবার (১৬ মে) পার্বত্য জেলা বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে ঈদ পুনর্মিলনী ও সুধি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কলেজের উদ্যোক্তা ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. শফি উল্লাহ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য গতানুগতিক কলেজ প্রতিষ্ঠা করা নয়। সকলের সহযোগিতা পেলে বাংলাদেশ-মায়ানমারের মৈত্রী সড়কের দ্বার ঘুমধুম ট্রানজিট পয়েন্ট সীমান্ত এলাকার এই কলেজটি হবে দেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. শফি উল্লাহ বলেন, ক্যামব্রিজ কিংবা অক্সফোর্ডের মতো আন্তর্জাতিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পিএইচডি ডিগ্রি ধারীদের খন্ডকালিন শিক্ষক হিসেবে নিয়োগের ব্যবস্থা করা হবে। যাতে শিক্ষার্থীরা নতুন দিগন্তের স্বপ্ন দেখে।

সভায় মতামত ব্যক্ত করে বক্তব্য রাখেন, উপজেল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইমরান মেম্বার, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ইমন, বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য ক্যনওয়ান চাক, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য অধ্যাপক রওশন আরা, অধ্যক্ষ ফরিদুল আলম, অধ্যাপক সিরাজুল হক, কক্সবাজার নিউজ ডটকম (সিবিএন) এর বার্তা সম্পাদক ইমাম খাইর, পালংখালী ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ও হেলাল উদ্দিন মেম্বার প্রমুখ।

এছাড়া সভায় উপস্থিত এলাকার বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তিবর্গও তাদের মতামত ব্যক্ত করেন।

বক্তারা সীমান্ত এলাকা ঘুমধুমে কলেজ প্রতিষ্ঠায় নিজ নিজ অবস্থান থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন এবং সীমান্ত এলাকা ঘুমধুমে একটি মানসম্মত কলেজ প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বারোপ করেন।

কলেজের উদ্যোক্তা উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক শফি উল্লাহ কলেজের অবকাঠামোর জন্য ৫ একর জমি নিজ থেকে দান করার ঘোষনা দেন এবং এলাকার ধনাঢ্য ব্যক্তিদের যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

এসময় নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. শফিউল্লাহর আমন্ত্রণে ঈদ পরবর্তী বাংলাদেশ-মায়ানমার মৈত্রী সড়ক ট্রানজিট পয়েন্ট সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়া ঈদগাঁও থানা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দও উক্ত ঈদ পুণর্মীলনী ও কলেজ প্রতিষ্ঠা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় যোগ দেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 1 =

আরও পড়ুন