বিসিকের ১ হাজার ২শ‘ ৬০টি অস্থায়ী পদ স্থায়ী করেছে সরকার

images

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক

শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া বলেন, দেশের নতুন ও পুরাতন মিলিয়ে ৮৪টি বিসিক শিল্পনগরিতে কর্ম চাঞ্চল্য সৃষ্টি করতে উদ্যোগ নিয়েছে মহাজোট সরকার। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে বিসিকের ১ হাজার ২শ‘ ৬০টি অস্থায়ী পদ স্থায়ী করার পাশাপাশি যোগ্য কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে নিয়োগ সংক্রান্ত কর্মকর্তা-কর্মচারিদের দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার করে নিলে দ্রুত শূণ্য পদে নতুন জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।

আজ সোমবার রাজধানীর বিসিআইসি মিলনায়তনে বিসিক কর্মকর্তা সমিতির নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহি পরিষদের অভিষেক উপলক্ষে বিসিক কর্মকর্তা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

বিসিক কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি মো. সামছুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী ওমর ফারুক চৌধুরী, শিল্পসচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ্, বিসিক চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম, বিসিআইসি‘র চেয়ারম্যান মোঃ মুনসুর আলী সিকদার, সমিতির সহ-সভাপতি আলী আশরাফ খান, সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান খান প্রমূখ।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনীতিতে বিসিক শিল্পনগরিগুলোর গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। প্রতি বছর বিসিকের বিভিন্ন শিল্পনগরি থেকে ভ্যাট ও আয়করখাতে প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা সরকারি কোষাগারে আসছে। শিল্পনগরিগুলো সংস্কারের মাধ্যমে এ আয়ের পরিমাণ বাড়ানো সম্ভব। তিনি এ লক্ষ্যে ব্যক্তিস্বার্থের ঊধের্¡ ওঠে সংস্থার কল্যাণে কাজ করতে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারির প্রতি আহবান জানান। কোনোরকমে সময় পার করার প্রবণতা পরিহার করে নিজেদের মেধা ও যোগ্যতার শতভাগ প্রয়োগ করতে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি পরামর্শ দেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, দেশব্যাপী ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পায়নের ক্ষেত্রে দীর্ঘদিন ধরে বিসিক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। দেশে টেকসই ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প বিকাশের লক্ষ্য অর্জনে বিসিকের বহুমুখী অভিজ্ঞতা কাজে লাগানো প্রয়োজন। তারা এ জন্য সংস্থায় নতুন জনবল নিয়োগ ও যোগ্য কর্তকর্তাদের পদোন্নতি দেয়ার দাবি জানান। এর মাধ্যমে শিল্পনগরিগুলোতে প্রাণ চাঞ্চল্য ফিরে আসবে বলে তারা উল্লেখ করেন।

একই সাথে তারা শিল্পনগরির অবকাঠামো সংস্কার, নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহ এবং জনবলের আধুনিক প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্ব দেন। 

 

 

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − ten =

আরও পড়ুন