ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের ফাইনাল কবে কখন?

fec-image

বারবার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের দুয়ার থেকে ফিরে আসার দুঃস্মৃতি পেছনে ফেলে অবশেষে মেগা ইভেন্টের ফাইনালের টিকিট পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৯ উইকেটের জয় পেয়েছে তারা। অন্যদিকে, দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে ৬৮ রানে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছে গেছে ভারত।

ফাইনালের আগে প্রস্তুতির জন্য খুব একটা সময় পাচ্ছে না রোহিত-মার্করামরা। একদিন পরই নেমে পড়তে হবে শিরোপার লড়াইয়ে। আগামীকাল (শনিবার) ব্রিজটাউনে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই দল।

বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল মানেই, দক্ষিণ আফ্রিকার বিদায়। ওয়ানডে বিশ্বকাপে পাঁচবার ও টি-টোয়েন্টিতে দু’বার এমন হওয়াতে ‘চোকার্স’ তকমাও পেয়েছে তারা। অবশেষে সেমির মঞ্চ পেরিয়ে ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকা। বোলারদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে সেমিফাইনালে আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের তোপে পড়ে ১১ দশমিক ৫ ওভারে মাত্র ৫৬ রানে অলআউট হয় আফগানিস্তান।

বিশ্বকাপের ইতিহাসে সেমিফাইনাল ম্যাচে এর আগে কখনোই কোনো দল এত কম রানে অলআউট হয়নি। ৫৭ রান স্পর্শ করতে ঘাম ঝড়াতে হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকাকে। ৬৭ বল বাকি রেখে ১ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় প্রোটিয়ারা। সেমিফাইনালে দুর্দান্ত জয়ে প্রথমবারের মত বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেই শিরোপা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার দলপতি মার্করাম।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই অসাধারণ এক অনুভূতি। সাদা বলের দুই ফরম্যাটে দীর্ঘদিন ধরেই একসাথে খেলছে এই দলটি। ফাইনালে উঠতে পারাটা দারুণ। আমাদের বিশ্বাস আমরা বিশ্বের যেকোনো দলের সাথেই লড়াই করতে পারি ও আমরা শিরোপা জিততে পারি। সেই সুযোগ সামনে আসায় ভালো লাগছে।’

শুধু সেমিফাইনালেই নয়, দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা পুরো টুর্নামেন্ট জুড়েই ভালো করেছে বলে মনে করেন মার্করাম। তিনি বলেন, শুধু আজকেই নয়, পুরো আসরে অসাধারণ বোলিং করেছে বোলাররা। বেশ কিছু ম্যাচে ব্যাটারদের বাঁচিয়ে দিয়েছে তারা। তবে অবশ্যই কন্ডিশন তাদের পক্ষে ছিল। তারপরও সবকিছু ঠিকমতো করার বিষয় থাকে। প্রতি ম্যাচেই আমাদের জন্য সেটা করছে। এজন্য তাদের প্রশংসা করতেই হবে।’

এদিকে, গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে বিদায় নিয়েছিল ভারত। বছর দুয়েক পর সেই হারের ক্ষতে প্রলেপ দিলো রোহিত শর্মার দল। এবার ইংলিশদের বিদায় করে ফাইনালের টিকিট কাটলো ভারত। গায়ানার প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭১ রান তুলেছিল ভারত। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেছেন রোহিত। জবাবে খেলতে নেমে ১৬ ওভার ৪ বলে ১০৩ রানে অলআউট হয়ে গেছে ইংল্যান্ড।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন