ভিডিও কলে বিয়ে, ১০ মাস পর প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

fec-image

লালমনিরহাটের আদিতমারীতে ভিডিও কলে বিয়ে হওয়া সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী আখি মনি চিরকুট লিখে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার (৬ জুলাই) সকালে উপজেলার আদিতমারী পশ্চিমপাড়া গ্রামে শ্বশুরবাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

আখি মনি লালমনিরহাটের তালুক খুঁটামারা বত্রিশ হাজারী গ্রামের আইনুল হকের মেয়ে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সৌদি আরব প্রবাসী শাকিল মিয়ার সঙ্গে ১০ মাস আগে ভিডিও কলের মাধ্যমে বিয়ে হয় আখি মনির। এরপর থেকে আখি বাবার বাড়ি থেকে লালমনিরহাট ফজলুল করিম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। প্রতিদিনের মতো শুক্রবার রাতে পরিবারের সঙ্গে খাওয়া-দাওয়া শেষে নিজের কক্ষে ঘুমিয়ে যান আখি মনি। শনিবার সকালে আখি মনির শ্বশুর নূর মোহাম্মদ ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে আখির শয়ন কক্ষে একটি খণ্ড খণ্ড চিরকুট পাওয়া যায়। খণ্ড খণ্ড চিরকুট মিলিয়ে দেখা যায়, এতে লেখা রয়েছে ‘আব্বু-আম্মু তোমরা আমাকে ক্ষমা করো। তোমরা আমাকে আগামীকাল সকাল ১১টায় নিয়ে যাবা। আমার জীবনে কিছু নেই, তোমরা আমাকে ক্ষমা করো।’

এ বিষয়ে আখির বাবা আইনুল হক অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে রাতে ফোন দিয়ে শ্বশুর-শাশুড়ির নির্যাতনের কথা বলেছে। রাতেই তাকে নিয়ে আসতে বলেছিল। আমি সকালে নিতে যাব বলেছি। তার আগেই তাকে মেরে ফেলা হয়েছে। আমি এই নির্যাতনকারী ও হত্যাকারীর বিচার চাই।

তবে এ বিষয়ে আখির শ্বশুর-শাশুড়ির বক্তব্য নিতে চাইলে তারা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

আদিতমারী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ উন নবী বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। প্রকৃত কারণ জানতে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার বাবা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আশা করছি তদন্ত হলেই প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন