কক্সবাজার উপজেলা নির্বাচন

ভোটের মাঠে চাচা-ভাতিজার লড়াই

fec-image

তৃতীয় ধাপে কক্সবাজারের উখিয়ায় ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনজনই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যুক্ত। তারাসহ ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদ মিলিয়ে মোট ১১ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এদিকে শুরুর দিকে নির্বাচনকে ঘিরে তেমন আগ্রহ দেখা না গেলেও, ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই উৎসাহ বাড়ছে সাধারণ মানুষের মাঝে। চায়ের চুমুকে চুমুকে নির্বাচনী আলোচনা জমে উঠেছে। চলছে হিসাবনিকাশ এবং নানা সমীকরণ।

অপরদিকে তোড়জোড় করে প্রচারণার শেষ মুহূর্তে মাঠে চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থী ও কর্মী-সমর্থকেরা। উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নের গ্রামে গ্রামে ও পাড়া-মহল্লায় দিনরাত ভোটারের কাছে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন। পাশাপাশি ভোটারদেরকে কাছে টানতে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা।

শুরুর দিকে উখিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের লড়াইকে কেউ কেউ একতরফা ভাবলেও, সেই পরিবেশ এখন ঘোলাটে হয়ে ভোটের মাঠে নতুন পরিবেশ তৈরি হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকে। কারণ হিসেবে অনেকে ইঙ্গিত করছেন, গেল বৃহস্পতিবার (২৩ মে) উখিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীর মৃত্যু এবং জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ও প্রয়াত অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীর মধ্যকার পারিবারিক ইস্যু ও রাজনীতির মাঠে অতীতের বোঝাপড়ার বিষয়বস্তুকে; বলা হচ্ছে মূলত এর পরই নতুন করে সমীকরণ মেলাতে হচ্ছে। এসব কথা এখন সাধারণ মানুষের মুখে মুখে।

শেষ মুহূর্তে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের তিনজন প্রার্থীর দুজনের মধ্যেই থাকবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা— উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী (আনারস মার্কা) ও উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর চৌধুরীর (মোটরসাইকেল মার্কা) মধ্যে।

অবশ্য আলোচনার টেবিল গরম করা ভোট-বিশ্লেষকরা বলছেন, এখানে কেউ কারও চেয়ে কম নয়। উভয়প্রার্থী নিজেদের সমর্থক নিয়ে ভোটারের কাছে ছুটছেন এবং ভোট কামনা অব্যাহত রেখেছেন। আবার অন্যদিকে পারিবারিক কোন্দলের কারণে ভাতিজা জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর জন্য তার চাচা জাফর আলম চৌধুরীও শেষ মুহূর্তে কাল হয়ে দাঁড়াতে পারে। নিশ্চয়ই এই সুযোগ টা হাতছাড়া করবেন না অভিজ্ঞ আবুল মনসুর চৌধুরী।

নির্বাচনে তিনজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী (আনারস মার্কা)। তিনি রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের টানা তিনবারের চেয়ারম্যান। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে তিনি ইউপি চেয়ারম্যান থেকে পদত্যাগ করেছেন আগেই। এ ছাড়া উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর আলম চৌধুরী (ঘোড়া মার্কা) ও কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর চৌধুরী (মোটরসাইকেল মার্কা)। বিএনপি থেকে কোনো প্রার্থী না হওয়ায় নিজেদের মধ্যেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তারা।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন উপজেলা পরিষদের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম (টিউবওয়েল মার্কা), উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রাসেল চৌধুরী (তালা মার্কা), উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কামাল উদ্দিন মিন্টু (মাইক মার্কা), সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও উখিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সহ-সভাপতি গফুর মিয়া চৌধুরী (চশমা মার্কা) ও জামায়াত নেতা মাওলানা গফুর উল্লাহ (বই মার্কা)।

এ ছাড়াও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন তিনজন— বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উখিয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুন্নেছা বেবী (কলসি মার্কা), সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শাহীন আক্তার (হাঁস মার্কা) ও সানজিদা আক্তার নূরী (প্রজাপতি মার্কা)।

সাধারণ ভোটাররা বলছেন, এবার দলীয় প্রতীক না থাকায় যার যার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন। নেই দলীয় প্রভাব, নেই কোনো বাধ্যবাধকতা। তবে বিএনপি নির্বাচনে না এলেও দেখা গেছে বিএনপির বেশকিছু নেতাকর্মী বিভিন্ন প্রার্থীর পক্ষে প্রকাশ্যে প্রচার-প্রচারণা করছেন।

উখিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, উপজেলা নির্বাচনকে অবাধ-সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার লক্ষ্যে আমাদের সকল প্রস্তুতি চলছে।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উখিয়া উপজেলায় মোট এক লাখ ৫১ হাজার ৫৬৪ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭৮ হাজার ৫৫০জন; মহিলা ভোটার ৭৩ হাজার ১৪ জন। ভোট কেন্দ্র ৬২ টি। ভোট কক্ষ (বুথ) রয়েছে ৩৫৫টি; তার মধ্যে স্থায়ী বুথ ৩৪৪টি ও অস্থায়ী বুথ ১১টি।

প্রথমবারের মতো, উখিয়ায় কোনো নির্বাচনে ভোটাররা ইভিএমে ভোট দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে এবার।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন