মহানবী (সা.) কে কটূক্তির প্রতিবাদ, ভারতে পুলিশের গুলিতে নিহত ২

fec-image

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির নেত্রী নূপুর শর্মা কর্তৃক মহানবীকে (সা.) নিয়ে করা অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে শুক্রবার (১০ জুন) বিশ্বজুড়ে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিক্ষোভ হয়েছে ভারতের বিভিন্ন শহরেও। এর মধ্যে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের রাঁচিতে পুলিশের গুলিতে দুজন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। খবর এনডিটিভি

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, শুক্রবার (১০ জুন) জুমার পর বিক্ষোভে ফেটে পড়ে মুসল্লিরা। তারা অবিলম্বে নূপুর শর্মাসহ দায়ীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন করা হয় পুলিশ বাহিনী।

এলাকার বেশিরভাগ দোকানপাট বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু তাতেও পরিস্থিতি পুরোপুরি সামলানো সম্ভব হয়নি। বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সাথে বিক্ষোভকারীদের খণ্ড যুদ্ধ লেগে যায়। বিক্ষোভকারীরা স্থানে স্থানে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এ সময় লাঠিচার্জ করে পুলিশ। এতে সেখানে ১২ জনের মতো মুসল্লি আহত হয়েছেন। তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকি ১০ জন চিকিৎসাধীন। সংঘর্ষের পর পুলিশ কারফিউ জারি করে।

গুলিবিদ্ধ হয়ে দুজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন সিটি পুলিশ প্রধান অংশুমান কুমার। তিনি জানান, মোট আটজন বিক্ষোভকারী এবং চারজন পুলিশ আহত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা চলছে। আপাতত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। একাধিক জায়গায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। এছাড়া কিছু কিছু স্থানে ইন্টারনেট পরিষেবাও বন্ধ রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে একটি টিভি শো-তে মহানবীকে (সা.) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন বিজেপির প্রাক্তন মুখপাত্র নূপুর শর্মা। একই ঘটনায় অভিযুক্ত হন দলের আরেক মুখপাত্র নবীন জিন্দাল। পরে তাদের সাসপেন্ড করে দল। এক পর্যায়ে বিষয়টি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ছড়িয়ে পড়লে প্রায় ১৫টি দেশ নয়াদিল্লির কাছে এ বিষয়ে জবাবদিহি দাবি করে। এরই মধ্যে গতকাল শুক্রবার এশিয়ার বিভিন্ন দেশ বিশেষ করে ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে ওঠে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 3 =

আরও পড়ুন