মহেশখালীতে ১৮ হাজার শিক্ষার্থীদের করোনার টিকাদান শুরু

fec-image

১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা জন্মনিবন্ধন সনদের মাধ্যমে সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করে করোনা ভাইরাসের টিকা গ্রহণ করছে।

শনিবার (৮ জানুয়ারি ) সকাল ১০ টায় মহেশখালী উপজেলার ৩৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১৮ হাজার শিক্ষার্থীদের মাঝে এই টিকা কায়ক্রম শুরু করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। মহেশখালীর দুটি ভ্যানুতে এই টিকা প্রদান করা হচ্ছে উপজেলা পরিষদ হল রুম ও মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ।

মহেশখালীতে যে সব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা টিকা গ্রহণ করবে, মহেশখালী আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয় ১৬৮০ জন, গোরকঘাটা উচ্চ বিদ্যালয় ৫১৩ জন, মহেশখালী কলেজ ৭০০ জন, মহেশখালী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ৪০০ জন, লিডারশীপ হাই স্কুল ৪০০, ক্যাম্বিয়ান হাই স্কুল ৭০ জন, পুটিবিলা ইসলামীয়া ফাজিল মাদ্রাসা ৪২৫ জন, কুতুবজুম উচ্চ বিদ্যালয় ৮২৫জন, কুতুবজোম অফসোর হাই স্কুল ৫০০ জন, ঘটিভাঙ্গা নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২৭০ জন, কুতুমজোম জামেয়া সুন্নাহ ৪৫০ জন, তাজিয়া কাটা সুমাইয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা ১৯৫ জন, কুতুবজোম ইসলামীয়া প্রি ক্যাডেট এন্ড কেজি মাদ্রাসা ৯০ জন, সরকারী বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ ২৫০ জন, আলমমগীর ফরিদ বিএম কলেজ ১৫০ জন, মহেশখালী আইল্যান্ড হাই স্কুল ১৬৫০ জন, বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ৯০৫ জন, ছোট মহেশখালী আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয় ৬৩০ জন, ছোট মহেশখালী বহুমূখি বিদ্যালয় ৮০ জন,, আহমদিয়া তৈয়বিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসা ৫০০ জন, সিপাহীর মদিনাতুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা ১৯০ জন, শাপলাপুর ইসলামীয়া আলিম মাদ্রাসা ৬০৬ জন, ষাইট মারা দাখিল মাদ্রাসা ৩২৮ জন, কায়দাবাদ ইসলামীয় দাখিল মাদ্রাসা ১২০ জন, শাপলাপুর নিম্ন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় ৬০জন, ষাইটমারা রেসিডেশিয়ান বিদ্যালয় ৫০ জন, বারিয়া পাড়া মডেল একাডেমি ৭০ জন, আলহাজ¦ মাষ্টার আব্দুল গণি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৪০ জন, বড় মহেশখালী দারুল কোরান দাখিল মাদ্রাসা ৪২৫জন, বড় মহেশখালী মহিলা দাখিল মাদ্রাসা ১৮০ জন, শাপলাপুর আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয় ১৩৪৭ জন, জেমঘাটা হাই স্কুল ৮৩৫ জন, মাতারবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় ২০০০ জন, মাতারবাড়ি আইডিয়াল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ১৫০ জন, মাতারবাড়ি নিম্ন মাধ্যমিক পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় ৩০০ জন, মাতারবাড়ি কিন্ডার গ্যার্ডেন এন্ড প্রি ক্যাডেট স্কুল ১০০ জন ছাত্রছাত্রী সহ মোট ১৮ হাজার শিক্ষার্থী এই টিকা গ্রহণ করবে।

মাউশির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যেসব শিক্ষার্থীর জন্মনিবন্ধন নেই (৬ জানুয়ারির মধ্যেও) এবং যাদের ১৬ নম্বরের (ডিজিট) নিবন্ধন নম্বর নেই, তাদের পুনরায় নিবন্ধন করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের জানানোর আহ্বান নির্দেশ দিয়েছেন।

মহেশখালী আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্র আশেক. ৯ম শ্রেণীর তানভীর, ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী অরপিতা পলি ও ৭ম শ্রেণীর ছাত্র রুবেল জানান, বিনা পয়সায় আমরা করোনার টিকা নিতে পেরেছি সেই জন্য মাননীয় প্রথানমন্ত্রীকে অনেক ধন্যবাদ।

৮ থেকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে টিকা দেওয়ার নির্ধারিত দিনে এবং স্থানে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিত হওয়ার বিষয়টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানেরা নিশ্চিত করবেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ১৮ হাজার শিক্ষার্থী, করোনার টিকাদান, মহেশখালী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 + 17 =

আরও পড়ুন