মহেশখালীতে ৪০ একর সরকারী জমিতে চিংড়ি ঘের, অভিযানে দখলমুক্ত

fec-image

কক্সবাজারের মহেশখালীতে প্রভাবশালীদের কবল থেকে সরকারি জমি দখলমুক্ত করেছে প্রশাসন। বুধবার (৩০ জুন) দুপুর আড়াইটায় কুতুবজোমের ঘটিভাঙ্গা ব্রীজ এলাকায় যৌথ অভিযানে ৪০ একর জমি দখলমুক্ত করা হয়। এসময় চর দখল করে নির্মিত চিংড়ি ঘেরের বাঁধ কেটে দেয়ার পাশাপাশি পাঁচটি সাইনবোর্ড গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) মহেশখালী শাখার সহ-সভাপতি আবুল বশর পারভেজ জানান, ‘মঙ্গলবার বাপা’র একটি টিম ওই এলাকা পরিদর্শনে যান। প্যারাবন ধ্বংস ও নদীর চর দখলকারীদের ব্যবস্থা নিতে উপজেলা প্রশাসনকে আহবান জানিয়েছিলাম। বিষয়টি নজরে এনে এ অভিযান পরিচালনা হলো।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহফুজুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের জমি দখল করে চিংড়ি ঘের তৈরি করছিল স্থানীয় বেশ ক’টি চক্র।

বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমে জানতে পেরে উপজেলা প্রশাসন ও বনবিভাগের সহায়তায় দখলমুক্ত করেছি।’

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) ঘটিভাঙ্গায় আশ্রয়ণ কেন্দ্র নির্মাণ করছে। সোনাদিয়ায় উন্নয়ন প্রকল্প নির্মাণের সুবাদে ওই এলাকার পরিবারগুলোকে ঘটিভাঙ্গার এ আশ্রয়ণ কেন্দ্রে পুনর্বাসন করা হবে।

অভিযানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহফুজুর রহমান ছাড়াও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হাই, ঘটিভাঙ্গা বিটের কর্মকর্তা নুর হোসেন চৌধুরী, পুলিশ সদস্য ও বনরক্ষীরা সঙ্গে ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − 3 =

আরও পড়ুন