মহেশখালীর নিখোঁজ গৃহবধূ আফরোজার লাশ উদ্ধার, স্বামীসহ শাশুরবাড়ির সবাই পলাতক!

fec-image

মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়ন এর উত্তর নলবিলায় গত ৬ দিন ধরে নিখোঁজ গৃহবধূ আফরোজা বেগম এর লাশ উদ্ধার করা হলো স্বামীর বাড়ির আঙ্গিনায় মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থা হতে। শনিবার  (১৭ অক্টোবর) রাত ১১টায় মহেশখালী থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। নিহত আফরোজা উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের পূঁইছড়া গ্রামের মোঃ ইসহাক এর মেয়ে।

বিগত এক বছর পূর্বে উত্তর নলবিলা গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা হাসান বশিরের পুত্র বদরখালী কলেজের খণ্ডকালীন প্রভাষক রাকিব হাসান বাপ্পির সাথে আফরোজার বিয়ে হয়। এটি উভয়ের তৃতীয় ও চতুর্থ বিয়ে। তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহের জের ধরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা পর্যন্ত গড়ায়। অবশেষে গত কিছুদিন পূর্বে মামলায় আপোষের সূত্র ধরে স্বামী বাপ্পি স্ত্রী আফরোজাকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়।

গত ১২ অক্টোবর স্ত্রী আফরোজা নিখোঁজ হয় বলে শাশুড়ি রোকেয়া হাসান আফরোজার বাবার বাড়িতে খবর দেয়। সেই থেকে আফরোজা নিখোঁজ ছিল। অপরদিকে স্বামী রাকিব হাসান বাপ্পী ও পলাতক হয়ে যায়। গতকাল ১৭ অক্টোবর রাত সাড়ে এগারোটায় মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল হাই জানিয়েছেন, স্বামী রাকিব হাসান বাপ্পির বাড়ির আঙ্গিনায় মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থা থেকে আফরোজার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

লাশ উদ্ধারের পর থেকে নিহতের শ্বশুর বাড়ির সবাই পলাতক রয়েছে। এঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহতের ভাই দাবি করেন আমার বোনকে হত্যাকরে তার শাশুর বাড়ির সবাই জড়িত রয়েছে, তাদের কঠিন বিচার দাবি করেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আওয়ামী লীগ, লাশ উদ্ধার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 1 =

আরও পড়ুন