মহেশখালী (অনুর্ধ্ব-১৭) দলের খেলোয়াড়দের হামলার প্রতিকার চেয়ে স্মারকলিপি

fec-image

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ফটবল টুর্নামেন্ট-২০১৯ এর জেলা পর্যায়ের খেলায় হেরে যাওয়ার জের ধরে মহেশখালী দলের খোলোয়াড়দের উপর হামলার ঘটনার প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে স্বারকলিপি দেওয়া হয়েছে। রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে মহেশখালীর আপামর জনতার পক্ষ থেকে এ স্বারকলিপি দেওয়া হয়।

স্বারকলিপি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ সেপ্টেম্বর বেলা ১১ টায় কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ট রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে কক্সবাজার পৌরসভা এবং মহেশখালী (অনুর্ধ্ব-১৭) দলের মধ্যকার খেলা ছিল। ম্যাচের নির্ধারিত সময়ে ১-০ গোলে কক্সবাজার পৌরসভা দল মহেশখালী দলের কাছে হেরে যায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে কক্সবাজার দল ও দলের লোকজন। পরে খেলা শেষে ড্রেসিং রুমে মহেশখালীর খোলোয়াড় সুমাইয়ার উপর তুচ্ছ অজুহাতে হামলা চালানো হয়। এ সময় সতীর্থ খোলোয়াড়রা এগিয়ে এলে তাদেরকেও পিটিয়ে আহত করা হয়।

কক্সবাজার পৌর দলের নারী খেলোয়াড় ও তাদের সাথে আসা উশৃঙ্খল লোকজন এ হামলা চালায় বলে অভিযোগ মহেশখালী দলের খোলোয়াড়দের। তারা বলেন, এমন দুঃখজনক ঘটনার পরেও বিষয়টি নিয়ে কোন প্রকার আইনগত ব্যবস্থা না হওয়ায় মহেশখালীর ক্রীড়ামোদী জনতা, সংগঠক ও খোলোয়াড়দের পরিবারে বেশ অসন্তোষ বিরাজ করছে। এ অবস্থায় ঘটনাটির বিষয়ে দ্রুত তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয়।

সন্ধ্যায় মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার জামিরুল ইসলামের হাতে এ স্মারকপত্র তুলে দেওয়া হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহেশখালী প্রেসক্লাব সভাপতি মাহবুব রোকন, বিভিন্ন সমাজিক কমিউনিটির পক্ষে যথাক্রমে সাংবাদিক আবুল বশর পারভেজ, আমিনুল হক, আনম হাসান, এম রমজান আলী, এম. বশির উল্লাহ, তারেক রহমান, সরওয়ার কামাল, আব্দুর রশিদ, এসএম রুবেল, গাজী আবু তাহেরসহ বিভিন্নজন।

এ সময় মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে তারা এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছেও ঘটনাটির সুষ্টু তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 3 =

আরও পড়ুন