মাটিরাঙায় গৃহবধুর আত্মহত্যা

fec-image

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় সালমা আক্তার (২৭) নামে নামে এক গৃহবধু গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (৩০ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের ডাক্তার পাড়ার নিজ বাড়ির রান্না ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন।

নিহত সালমা আক্তার ডাক্তার পাড়ার বাসিন্দা ও মাটিরাঙ্গার পূর্ব খেদাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোহাম্মদ হোসেন লিটন এর স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, স্বামী সকালের দিকে স্কুলে চলে যাওয়ার পর নিজ বাড়ির রান্না ঘরের আঁড়ার সাথে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করে। মায়ের ঝুলন্ত লাশ দেখার পরে তার বাচ্চারা শোর চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মিল্টন ত্রিপুরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার মিল্টন ত্রিপুরা বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহেতর স্বামী মোহাম্মদ হোসেন লিটন জানান, একমাস আগে আমার স্ত্রী তৃতীয় কন্যা সন্তানের মা হয়েছে। তৃতীয় কন্যা সন্তান হওয়ার বিষয়টি জানার পর থেকেই আমার স্ত্রী মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। এজন্য তার চিকিৎসাও চলছিল।

গৃহবধূ সালমা আকতারের আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেন মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে নিহতের লাশ হস্তান্তর করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − nine =

আরও পড়ুন