মাটিরাঙ্গায় কঠোর লকডাউন কার্যকরে প্রশাসন-জনপ্রতিনিধি একাট্টা

fec-image

সারাদেশে প্রতিদিনই প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমন আর মৃত্যুর সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তোরণে আজ (১ জুলাই) থেকে আগামী সাত দিনের জন্য কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় শতভাগ লকডাউন কার্যকরে কঠোর লকডাউনের প্রথম দিনে বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের সাথে একাট্টা হয়ে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী-পুলিশ-বিজিবিসহ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। তাদের সাথে ছিলেন ব্যাবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অ.দা) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজ ফারজানা আক্তার ববি’র নেতৃত্বে সকাল থেকেই মাঠে ছিলেন খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মেহেদী হাসান শাকিল, মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান, উপজেলা আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রহিমা বেগম, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ মোহাম্মদ আলী, মাটিরাঙ্গা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

মাটিরাঙ্গা বাজারের গলি দখল করে বিভিন্ন দোকানের সামনে থাকা উপদোকান অপসারনের সময় বেঁধে দিয়ে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অ.দা) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজ ফারজানা আক্তার ববি বলেন, গলিপথ দখল করে কেউ ভাড়া বা ব্যবসা করতে পারবেনা। জনসাধারণের চলাচল বিঘ্নিত হয় এমন কিছু মেনে নেয়া হবেনা।

সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে পুলিশ সবসময় মাঠে থাকবে জানিয়ে ও মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী লকডাউন কার্যকরে ব্যবসায়ীসহ মাটিরাঙ্হার সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অ.দা) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটে মিজ ফারজানা আক্তার ববি বলেন, সাধারন মানুষ ও ব্যবসায়ীদের সচেতন করা হচ্ছে। ঘরের বাহিরে না আসার জন্য মানুষকে বুঝানো হচ্ছে। তিনি বলেন, অপ্রয়োজনে কেউ ঘর থেকে বের হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আগামীকাল থেকে প্রশাসন আরও কঠোর অবস্থানে যাবে বলেও জানান মাঠ প্রশাসনের এ কর্মকর্তা।

সাধারণ মানুষকে বাড়ি-ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, প্রশাসন ও জনপ্রতিনিদিরা সবসময় মাঠে থাকবে। করোনার উর্ধ্বমুখী সংক্রমন রোধ করতে না পারলে আমাদের জন্য বড় ধরনের বিপদ আসতে পারে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 4 =

আরও পড়ুন