মাটিরাঙ্গায় বাঙ্গালী কৃষককে মারধর করেছে ইউপিডিএফ

fec-image

পাহাড়ে অব্যাহত হত্যা, গুম ও খুনের ধারাবাহিকতায় এবার জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে মো. জামাল উদ্দিন (৫৫) নামে এক বাঙ্গালী কৃষককে তুলে নিয়ে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে সশস্ত্র সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইফপিডিএফ(প্রসীত)‘র বিরুদ্ধে।

সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন ওয়াচু এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, স্থানীয় নরেন্দ্র ত্রিপুরার কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকায় ১০ বছরের জন্য পাঁচ একর জমি বন্ধক নেন স্থানীয় বাঙ্গালী কৃষক মো. জামাল উদ্দিন। বন্ধক নেয়ার পর গত তিন বছর ধরে ওই জমিতে বিভিন্ন ফসলের চাষ করে আসছেন কৃষক মো. জামাল উদ্দিন।

সম্প্রতি স্থানীয় বিক্রম ত্রিপুরা ও যুদ্ধ ত্রিপুরা জমির মালিক নরেন্দ্র ত্রিপুরার সাথে পরামর্শ ক্রমে ওই জমি ছেড়ে দিতে বলে। এনিয়ে একাধিকবার শালিস বৈঠক হলেও কোন ধরনের সুরাহা না হলে ভুক্তভোগী কৃষক মো. জামাল উদ্দিন মাটিরাঙ্গা থানায় অভিযোগ করেন। থানায় অভিযোগ করলে চুক্তি অনুযায়ী আগামী ৭ বছর জমি ভোগ করে জমির মালিক নরেন্দ্র ত্রিপুরাকে জমি ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে গত একমাস পুর্বে সশস্ত্র সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইফপিডিএফ সদস্যরা কৃষক মো. জামাল উদ্দিনকে দেখা করতে বলে। কিন্তু ওই কৃষক তাদের সাথে দেখা না করায় ঘটনার দিন চার ইউপিডিএফ সদস্যসহ ওয়াচুপাড়ার বিক্রম ত্রিপুরা ও যুদ্ধ ত্রিপুরা কৃষক মো. জামাল উদ্দিনকে তুলে এনে হরির দোকানের সামনে লাকড়ি দিয়ে মারধর করে ছেড়ে দেয়। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় কৃষক মো. জামাল উদ্দিনকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এদিকে আহত কৃষক জামাল উদ্দিনের ছেলে বাদী হয়ে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আলী। মাটিরাঙ্গা থানার মামলা নং-২, তারিখ-১৫/১২/২০২০ই। এঘটনায় বিক্রম ত্রিপুরা (৩৩) ও যুদ্ধ ত্রিপুরা (২৬) নামে দুইজনকে আটক করে মাটিরাঙ্গা থানায় সোপর্দ করেছেন নিরাপত্তাবাহিনী।

এদিকে মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন কৃষক মো. জামাল উদ্দিনকে দেখতে যান খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য হিরন জয় ত্রিপুরা ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম। এসময় তারা কৃষক মো. জামাল উদ্দিনের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।

এসময় খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য হিরন জয় ত্রিপুরা জামাল উদ্দিনের চিকিৎসায় আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইউপিডিএফ, কৃষককে, বাঙ্গালী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − five =

আরও পড়ুন