মাটিরাঙ্গায় ভ্রাম্যমান আদালতে তিন দোকানীর জরিমানা

fec-image

দিনভর মাটিরাঙ্গা বাজারের বিভিন্ন দোকানে ১০০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি হলেও বিকালের দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিভীষণ কান্তি দাশ’র উপস্থিতির খবরে মুহূর্তের মধ্যেই ৩০ টাকা কমে ৭০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রির হিড়িক পড়ে। এ ঘটনায় সাধারণ ক্রেতারাও পেঁয়াজ কিনতে হুমরি খেয়ে পড়ে।

মঙ্গলবার বিকালের দিকে তিনি খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করতে গেলে এমন ঘটনা ঘটে।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ মাটিরাঙ্গার বিভিন্ন দোকানে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় তিনটি মুদি দোকানদারকে মূল্য তালিকা না টানানো ও ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ না করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৩৮ ধারা মতে ১১হাজার টাকা জরিমানা করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকালে মাটিরাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোজাম্মেল হক ও মাটিরাঙ্গা বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. সোহাগ মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় পেঁয়াজের কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি না করতে ব্যবসায়ীদের আহ্বান জানিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ বলেন, দেশে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। বাজার মনিটরিং অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

পণ্যের মূল্য তালিকা ও ক্রয় রশিদ প্রদর্শন বাধ্যতামুলক জানিয়ে তিনি বলেন কেউ যদি পণ্যের মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করে তাহলে ভোক্তা অধিকার আইনে তার বিরুদ্ধে কঠোর প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এদিকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করার সময় পেঁয়াজ ৭০ টাকা দরে বিক্রি করা হলেও ভ্রাম্যমান আদালাত পরিচালনা শেষেই প্রতি কেজি ৯০ টাকা থেকে ১০০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগ করেছেন একাধিক ক্রেতা। ব্যবসায়ীদের এমন দ্বিমুখী আচরনে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন সাধারণ ক্রেতারা।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: জরিমানা, ভ্রাম্যমান আদালতে, মাটিরাঙ্গায়
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 + 17 =

আরও পড়ুন