মাটিরাঙ্গায় স্বাধীনতার সুর্বণ জয়ন্তী ও মহান বিজয় দিবস উদযাপন

fec-image

বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী ও মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে মাটিরাঙ্গার সসর্বস্তরের জনগন। দিবসের শুরুতেই ৫০ বার তোপধ্বনি প্রদান করে মাটিরাঙা থানা পুলিশের একটি চৌকস দল।

বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) ভোরে স্বাধীনতা সোপানে মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম ও মাটারাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজ তৃলা দেব পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করেন। এসময় মাটিরাঙ্গার সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো. হেদায়েত উল্যাহ সহ বিভাগীয় প্রধানগন উপস্থিত ছিলেন।

এরপরপরই বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মাটিরাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পক্ষে ৭১’র রনাঙ্গনে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মাটারাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজ তৃলা দেব। তারপর পদস্থ অফিসারদের সাথে নিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (মাটিরাঙা সার্কেল) মো. খোরশেদ আলম ও মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী।

দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে ৭১’র রনাঙ্গনে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মাটিরাঙা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান ও সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা। এসময় মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসরাম, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য হিরন জয় ত্রিপুরা, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্মসম্পাদক মো. তাজুল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হারুনুর রশীদ ফরাজী, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. রাকিবুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম খোন্দকার, মাটিরাঙা পৌরসভার কাউন্সিলর মো. শহীদুল ইসলাম সোহাগ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. তছলিম উদ্দিন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তালেব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মাটিরাঙ্গা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে স্বাধীনতা সোপানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে সর্বস্তরের জনসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য স্বাধীনতা সোপান উন্মুক্ত করে দেয়া হয়।

এদিকে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সাধারণ মানুষের ভিড় বাড়তে থাকে। নারী-পুরুষ,তরুণ-তরুণীসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষ যেন মিলেছে একই মোহনায়। জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে মাটিরাঙ্গার বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ দলে দলে এখানে এসেছে। স্বাধীনতা সোপানে হাজারো মানুষের ঢল নামে। ফুলে ফুলে ছেয়ে যায় স্বাধীনতা সোপানের আশপাশ।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের মাধ্যমে পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামের একটি স্বাধীন দেশের অভ্যুদয় ঘটে। সে হিসাবে আজ বিজয়ের ৫০ বছর পূর্তি। এদিনে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হচ্ছে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের,যাদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে জন্ম নিয়েছিল বাংলাদেশ নামক একটি ভূখণ্ডের।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − fifteen =

আরও পড়ুন