মাতামুহুরী রেঞ্জে সামাজিক বনায়নের উপকারভোগীদের মাঝে চেক বিতরণ

fec-image

লামা বন বিভাগের মাতামুহুরী রেঞ্জে ২০০৩-২০০৪ আর্থিক সনের সামাজিক বনায়নের উপকারভোগীদের মাঝে লভ্যাংশের টাকার চেক বিতরণ করা হয়েছে।

রবিবার (১৭ মে) উপজেলা পরিষদ হলরুমে এ উপলক্ষ্যে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কালাম।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সায়েদ ইকবালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চেক বিতরণ অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এসএম কায়ছার, ভাইস চেয়ারম্যান কফিল উদ্দিন বিএসসি প্রমুখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন তৈন রেঞ্জ কর্মকর্তা খন্দকার শামছুল হুদা।

বন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ২০০৩-২০০৪ সালে মাতামুহুরী সংরক্ষিত বনাঞ্চলে সামাজিক বনায়নের আওতায় সৃজিত বাগানের ব্লকউড আবর্তকাল সম্প্রতি পূর্ণ হয়। গত ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে বিএফআইডিসিকে গড় নিলামে ৬০ হেক্টর বাগানের গাছ বিক্রি করা হয়। এতে মোট বিক্রি মূল্য দাড়ায় ৬০ লক্ষ ৪৮ হাজার ৪৬৪ টাকা। ৪৫% হারে সরকারি কোষাগারে জমা হয় ২৭ লক্ষ ২১ হাজার ৮০৮ টাকা।

একইসাথে ৪৫% হারে ৬০ জন উপকারভোগী পান ২৭ লক্ষ ২১ হাজার ৮০৮ টাকা। এরমধ্যে সরকার এবং উপকারভোগী মিলে ১০ অর্থ হিসেবে ৬ লক্ষ ৪ হাজার ৮৪৭ টাকা বৃক্ষরোপন তহবিলের জন্য রাখা হয়েছে।

উপকারভোগী সদস্য মো. আলমগীর ও রফিকুল ইসলাম জানান, দু’টি ব্লকে তাদের ৬০ জন উপকারভোগী রয়েছে। প্রত্যেকে ৪৫ হাজার ৩৬৩ টাকা হারে লভ্যাংশ পেয়েছেন।

তারা বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে লকডাউনের কারণে আলীকদমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠী খুবই আর্থিক দুরাবস্থায় দিনযাপন করছেন। লামা বন বিভাগীয় কর্মকর্তা ও মাতামুহুরী রেঞ্জ কর্মকর্তা এ দুর্যোগকালীন পরিস্থিতি চেক বিতরণ করে মানবতার সেবা করেছেন।

মাতামুহুরী রেঞ্জ কর্মকর্তা জহির উদ্দিন মো. মিনার চৌধুরী জানান, রবিবার ৪৯ জন উপকারভোগী সদস্যের মাঝে ২২ লক্ষ ২২ হাজার ৭৮৭ টাকার চেক বিতরণ করা হয়েছে। অন্য উপকারভোগীদের চেকও আবেদন করলে প্রদান করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস, বন বিভাগ, লামা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × four =

আরও পড়ুন