মাতারবাড়িতে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধ, আটক ৪

fec-image

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়িতে পুলিশের সাথে স্থানীয় একটি গ্রুপের গুলি বিনিময় হয়েছে। এঘটনায় পুলিশ ৪ জন কে আটক করেছে ।

গত বৃহাস্পতিবার গভীর রাতে মাতারবাড়ির সাইরার ডেইল এলাকার হানির বাপের মসজিদ কমিটি নিয়ে ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহাস্পতিবার (৩ অক্টোবর) গভীর রাতে স্থানীয় ওর্য়াড আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামের নির্দেশে তার সাঙ্গপাঙ্গরা পুলিশের উপর ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে । এতে আত্মরক্ষাতে পুলিশ ও গুলি ছুঁড়ে। এঘটনায় এলাকায় মুহুর্তের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার হামেদ হোসাইন জানান, বৃহাস্পতিবার রাত অনুমানিক সাড়ে ১১টায় গুলির শব্দে ঘুম ভেঙ্গে যায়। বাইরে গিয়ে দেখি পুলিশ ও স্থানীয়দের ছুটাছুটি জানতে পারি হানিবর মসজিদ নিয়ে বিরোধ থাকার কারণে নজরুল গংরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে ।

এব্যাপারে মহেশখালী থানার ওসি প্রভাব চন্দ্র ধর জানান, ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪জনকে আটক করা হয়েছিলো তাদের মধ্যে বিরোধ মিমাংসার করার ফলে মুসলেখা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

বর্তমান ওই মসজিদ পরিচালনা কমিটির মো. ছিদ্দিক আহমদ জানান, আমরা র্দীঘদিন ধরে হানির বাপের মসজিদটি পরিচালনা করে আসছি, প্রতি বছর বছর মসজিদ কমিটি সভা করে থাকে নজরুল গংদের বিরোধের কারণে এ বছর সভা পর্যন্ত করতে দেয়নি তারা। এদিকে এই ঘটনাকে ভিন্নহাতে প্রভাহিত করতে নজরুল গংরা পত্রিকায় বিভিন্ন ধরনের কুরুচিপূর্ণ সংবাদ পরিবেশ করে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্তি করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ।

এব্যাপারে ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমরা মসজিদের জায়গা দান করেছি ফলে আমাদেরও মসজিদ কমিটিতে থাকা প্রয়োজন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আটক, বন্দুকযুদ্ধ, মাতারবাড়ি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 − 5 =

আরও পড়ুন